আপডেট : ১৯ অক্টোবর, ২০১৭ ১৬:২৪

‘দোষ বাংলাদেশি পেসারদের; ওয়ালশের নয়’

অনলাইন ডেস্ক
‘দোষ বাংলাদেশি পেসারদের; ওয়ালশের নয়’

দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটের জীবন্ত কিংবদন্তি অ্যালান ডোনাল্ড। ওয়ানডেতে ২৭২, টেস্টে ৩৩০ উইকেটের মালিক। আর প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারে তার উইকেটসংখ্যা দেখলে চোখ কপালে ওঠা স্বাভাবিক! ১২১৬টি উইকেট নিয়েছেন তিনি প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে! গতকাল দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম বাংলাদেশের দ্বিতীয় ওয়ানডে দেখতে স্টেডিয়ামে এসেছিলেন। দেখেছেন বাংলাদেশি বোলারদের ওপর প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানদের তাণ্ডব। 

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে পেস সহায়ক উইকেটে বাংলাদেশি পেসারদের নাজেহাল অবস্থার কারণে সমর্থকরা অনেকেই কোচ ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি কোর্টনি ওয়ালশকে দায়ী করছেন। তারা বলছেন, ওয়ালশ কিংবদন্তি হতে পারেন কিন্তু কোচ হিসেবে ভালো নন। বাংলাদেশি পেসারদের নিয়ে বিশ্লেষণে এই মতবাদের সঙ্গে সম্পূর্ণ বিপরীত মতই প্রকাশ করলেন ডোনাল্ড। তার মতে, ওয়ালশের এখানে কোনো ঘাটতি নেই।

একটি ক্রিকেট বিষয়ক সাইটে সাক্ষাতকারে প্রোটিয়া কিংবদন্তি বললেন, 'ক্রিকেটের সর্বকালের সেরা একজন পেসারকে কোচ হিসেবে পেয়েছে বাংলাদেশ। এটা তো অনেক বড় ভাগ্যের ব্যাপার। আপনার কাজ হলো তার কাছ থেকে সেরাটা আদায় করে নেওয়া। এক্ষেত্রে শেখার আগ্রহটা থাকতে হবে। যদি বাংলাদেশি পেসাররা এটা না পারে তাহলে সেটা খুবই দুঃখজনক ব্যাপার। ' তিনি আরও বলেন, 'কোর্টনির কাছ থেকে যদি বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা কিছু শিখতে না পারে সেটা তাদের ব্যর্থতা। অনেক বড় সুযোগ তারা হাতছাড়া করছে। আপনি যদি প্রভাবশালী একজন পেসার হতে চান তবে আপনাকে প্রচুর পরিশ্রম করতে হবে। আমি ওদের (বাংলাদেশের) খেলা খুব বেশি না দেখলেও বলতে পারি, পেসারদের অনেক ঘাটতি আছে। '

ডোনাল্ড টেস্ট সিরিজে দেখেছেন কাগিসো রাবাদার পেস আক্রমণ। শেষ টেস্টে তো তিনি একাই বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপ ধসিয়ে ইনিংস পরাজয়ের লজ্জা দেন। ২২ বছর বয়সী এই তরুণের উচ্ছসিত প্রশংসা করে ডোনাল্ড বলেন, 'ওর বোলিংয়ে অদ্ভুত সৌন্দর্য আছে। দিনের পর দিন কঠোর পরিশ্রম করে নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে যাচ্ছে সে। ওর প্রতি বোর্ডের বাড়তি নজর সবসময় থাকা উচিত। ' ২০০২ সালে টেস্ট এবং ২০০৩ সালে ওয়ানডে থেকে অবসর নেওয়া ডোনাল্ড বাংলাদেশের বিপক্ষে মাত্র ৩টি ওয়ানডে খেলেছেন। উইকেট নিয়েছেন ৩টি

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে