আপডেট : ৯ মে, ২০১৬ ১৪:০৪

বিগ ব্যাশের বিগ ফিস মুস্তাফিজ

খেলাধুলা
বিগ ব্যাশের বিগ ফিস মুস্তাফিজ

বিশ্বকাপ ও ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে দুর্দান্ত পারফর্মেন্স করার পর মুস্তাফিজের সামনে অস্ট্রেলিয়ান ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে বিগ ব্যাশের দরজা খুলে যাবে সেটা অনুমিতই ছিল। এবার বাংলাদেশের এই বাঁহাতি পেসার  মুস্তাফিজকে দলে পাওয়ার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে তিন দল – মেলবোর্ন রেনেগেডজ, সিডনি সিক্সার্স ও সিডনি থান্ডার্স। এমন তথ্য দিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট বিষয়ক শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম ক্রিকেট.কম.এইউ। 

বিগ ব্যাশের ষষ্ঠ আসরের ফিক্সচার এখনও চূড়ান্ত না হলেও এরই মধ্যে দলগুলো নিজেদের ঘর গুছিয়ে নিতে শুরু করেছে। আটটা দলের মধ্যে কেবল মেলবোর্ন স্টার্সই দু্’জন বিদেশি খেলোয়াড়ের কোটা পূরণ করে ফেলেছে। সেই দু’জন হলেন ইংল্যান্ডের লুক রাইট ও কেভিন পিটারসেন। বাকি সাত দলের কমপক্ষে একজন করে বিদেশি খেলোয়াড় এখনও দরকার।

আর সেদিক থেকে কার্টার মাস্টার মুস্তাফিজকে পাওয়ার দৌড়ে এখন অবধি সবচেয়ে এগিয়ে আছে মেলবোর্ন রেনেগেডজ।
কারণ, এই দলের পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন আইপিএলে মুস্তাফিজের দল সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের কোচ টম মুডি। তাদের দলের দুই বিদেশি খেলোয়াড় কোটায় কেউই এখন পর্যন্ত চূড়ান্ত না হলেও, দলটি আশা করছে ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান অল রাউন্ডার ডোয়াইন ব্রাভোকে পাবে তারা। এর সাথে এবার ২০ বছর বয়সী মুস্তাফিজকে যোগ করতে চাইছে তারা। আর সেটা করার ক্ষেত্রে টম মুডিকে প্রধান ভরসা মনে করছে দলটি।

এদিকে, সিডনি থান্ডার্সের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমানে ম্যানেজারের দায়িত্বে থাকা মাইক হাসি আইপিএলের ধারাভাষ্যকক্ষে বসে ‍মুস্তাফিজকে পরখ করে নেয়ার সুযোগ পাচ্ছেন। জানা গেছে, এই সিডনি থান্ডার্সের রাডারেও আছেন মুস্তাফিজ। সেক্ষেত্রে আসন্ন মৌসুমে তিনি জুটি বাঁধবেন ওয়েস্টি ইন্ডিয়ান অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেলের সাথে। থান্ডার্স চাইছে কিংবদন্তি অলরাউন্ডার জ্যাক ক্যালিসের অভাব এক বোলিং দিয়েই পুষিয়ে দেবেন মুস্তাফিজ।

মুস্তাফিজকে এবার বিগ ব্যাশে খেলে ফেললে সাকিব আল হাসানের পর দ্বিতীয় বাংলাদেশি হিসেবে সম্মানজনক এই আসরে খেলার সুযোগ পাবেন। সাকিব বিগ ব্যাশের দ্বিতীয় ও চতুর্থ আসরে যথাক্রমে খেলেছেন অ্যাডিলেড স্ট্রাইকার্স ও মেলবোর্ন রেনেগেডজের হয়ে। 

বিডিটাইমস৩৬৫/এএ 

উপরে