আপডেট : ২৯ মার্চ, ২০১৬ ০১:১৭

তাসকিনের ফেরার লড়াই শুরু

স্পোর্টস ডেস্ক
তাসকিনের ফেরার লড়াই শুরু

দল তো বটেই, তাঁকে নিয়ে লড়াইয়ে নেমে পড়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও (বিসিবি)। কিন্তু তাসকিন আহমেদকে নিয়ে লড়াইয়ে নেমেও সুফল পাওয়া যায়নি। সন্দেহজনক বোলিং অ্যাকশনের জন্য এ তরুণের নিষেধাজ্ঞাকে চ্যালেঞ্জ করে বিসিবি রিভিউ আবেদন করলেও তাতে কাজ হয়নি। আইসিসি নিষেধাজ্ঞাই বহাল রাখে। এই ঘটনার পর বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানকেও ক্ষোভ নিয়ে বলতে শোনা গেছে, ‘আমাদের বিরুদ্ধ পরিবেশেই খেলতে হবে।’ আশার কথা, সেই বিরুদ্ধ পরিবেশে থেকেই নিষিদ্ধ হওয়া তাসকিন আশাহত হওয়ার বেদনায় ডুবে থাকেননি। তিনি বরং ফেরার লড়াই শুরু করে দিয়েছেন। যে কারণে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলে দেশে ফেরার পর জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা সবাই যখন যে যার মতো করে বিশ্রাম নিচ্ছেন এবং পরিবারের সান্নিধ্যে সময় কাটাচ্ছেন, তখন তরুণ এ পেসার ঘাম ঝরাতে শরু করে দিয়েছেন। আর সেই ঘাম ঝরানোটা তাঁর বোলিং অ্যাকশন শুধরে নেওয়ার। দল রোববার ফিরলেও তাসকিন দেশে ফেরেন তারও দুয়েকদিন আগে। কয়েকটি দিন পরিবারের সঙ্গে কাটিয়েই তাসকিন মাঠে নেমে পড়েছেন। দলের সঙ্গে ঢাকায় ফিরতে না ফিরতেই তাসকিনকে নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়তে হয়েছে জাতীয় দলের ভিনদেশী বোলিং কোচ হিথ স্ট্রিককেও। জিম্বাবুয়ের সাবেক এ অধিনায়কের অধীনেই সোমবার থেকে অ্যাকশন শুধরে নেওয়ার পুনর্বাসন প্রক্রিয়া শুরু করে দিয়েছেন তাসকিন। এদিন মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের পাশেই একাডেমী মাঠে তাসকিনকে নিয়ে লম্বা সময় ধরে ব্যস্ত থেকেছেন সাবেক এ ফাস্ট বোলার। স্ট্রিকের অধীনে তাসকিনকে বোলিংও করতে দেখা গেছে। নিয়ম হল অ্যাকশন শুধরে নেওয়ার পর আইসিসিকে জানাতে হবে যে তাসকিন আবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে প্রস্তুত। এরপর আইসিসি অনুমোদিত পরীক্ষাগারে আবার তাঁর অ্যাকশনের পরীক্ষা নেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। সেই পরীক্ষায় উতরে গেলেই কেবল তাসকিন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার ছাড়পত্র পাবেন।

উপরে