আপডেট : ২৭ মার্চ, ২০১৬ ২২:৫৮

ভারতকে চাপের মধ্যে রেখেছে অস্ট্রেলিয়া

বিডিটাইমস ডেস্ক
ভারতকে চাপের মধ্যে রেখেছে অস্ট্রেলিয়া

ভারতকে চাপেই রেখেছে অস্ট্রেলিয়ার বোলাররা। রানের গতি বাড়াতে হবে স্বাগতিকদের। লক্ষ্য একটু একটু করে বড় হয়ে যাচ্ছে। দুই দলের জন্যই মোহালিতে এটা বাঁচা-মরার লড়াই এটা। জিতলে সেমিফাইনাল। হারলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে বিদায়।

এমন ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিংয়ের শুরুতে ২০০ রানও সম্ভব মনে হচ্ছিল! কিন্তু শত কোটি ভারতীয়কে স্বস্তি দিয়ে লড়াইয়ে ফেরে তাদের বোলাররা। শেষ পর্যন্ত ৬ উইকেটে ১৬০ রান করে অস্ট্রেলিয়া। এরপর ৪৯ রানে শীর্ষ ৩ ব্যাটসম্যানকে হারায় ভারত। ১২ ওভার শেষে ৩ উইকেটে ৮০ রান তাদের। বিরাট কোহলি ৩০ ও যুবরাজ সিং ১৩ রানে ব্যাট করছেন। 

ভারতের ওপেনিং জুটিতে এলো ২৩ রান। চার-ছক্কায় শুরু করা শিখর ধাওয়ানের মধ্যে প্রতিশ্রুতি ছিল। কিন্তু কল্টার-নাইলকে হুক করতে গিয়ে ব্যক্তিগত ১৩ রানে ক্যাচ দিয়ে ফিরতে হয়েছে তাকে। এর পরের দুটি আঘাত শেন ওয়াটসনের। ষষ্ঠ ও অষ্টম ওভারে। ১২ রানের মধ্যে রোহিত শর্মা (১২) ও সুরেশ রায়নাকে (১০) হারিয়ে ফেলে চাপে পড়ে ভারত। ৪৯ রানে ৩ উইকেট নেই। বিরাট কোহলি জোড়া বাউন্ডারি মেরে শুরু করেছেন। কিন্তু যুবরাজ সিং শুরু করতেই হ্যামস্ট্রিংয়ের টানে পড়েছেন। খেলা তবু চালিয়ে যাচ্ছিলেন। ১০ ওভারে ৬৫ রান ভারতের। তার মানে জিততে বাকি দশ ওভারে ৯.৬০ গড়ে ৯৬ রান তুলতে হবে ভারতের।

এর আগে ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারে জসপ্রিত বুমরাহকে ৪টি বাউন্ডারি মেরে দিলেন উসমান খাজা। ১৭ রান এই ওভারে। চতুর্থ ওভারে এমএস ধোনি তাই বুমরাহকে সরিয়ে স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে বল দিলেন। কিন্তু এবার অ্যারন ফিঞ্চ যে তাকে পরপর দুই বলে দুই ছক্কা হাঁকিয়ে দিলেন! ২২ রান এই ওভারে! আগের ওভারে আশিস নেহরাও মার খাওয়ায় ধোনির কপালে তখন ঘাম। পেসার নেহরা নিজের তৃতীয় ওভারে বিপজ্জনক উসমান খাজাকে (২৬) তুলে নিলে বেশ স্বস্তি পায় ভারত। উইকেটের পেছনে চমৎকার ক্যাচ নিয়েছেন ধোনি। ৫৪ রানে প্রথম ব্যাটসম্যান হারায় অস্ট্রেলিয়া।

৪ ওভারে ৫৩ রান তুলে ফেলা অস্ট্রেলিয়াকে এরপর চেপে ধরে ভারতীয়রা। দারুণভাবে লড়াইয়ে ফিরেছে স্বাগতিকরা। পরের ৬ ওভারে ২৮ রান তুলতে ডেভিড ওয়ার্নার (৬) ও অধিনায়ক স্টিভ স্মিথকে (২) হারালো অস্ট্রেলিয়া। ওয়ার্নারকে আউট করলেও অশ্বিন ২ ওভারে ৩১ রান দেয়ায় আর বল পেলেন না। বাঁ হাতি স্পিনার রবিন্দ্র জাদেজা প্রথম ২ ওভারে মাত্র ৬ রান দিলেন। শেষের ১ ওভারে দিয়েছেন ১৪।

গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের সাথে ফিঞ্চের ২৬ রানের জুটি হলো। ফিঞ্চ ততক্ষণে উইকেটে বেশ থিতু হয়েছেন। কিন্তু ১৩তম ওভারে দলের রান ১০০তে নিয়ে ফিঞ্চ বিদায় নিলেন। হার্দিক পান্ডিয়াকে পুল করে ক্যাচ দিয়ে ফেরার সময় ৩৪ বলে ৪৩ রান তার। দায়িত্ব নিয়ে খেলছিলেন ম্যাক্সওয়েল। জাদেজাকে সুইচ হিটে ছক্কা মেরে দিলেন! কিন্তু বুমরাহ তাকে স্লোয়ারে বোল্ড করলেন পরের ওভারে। ৩১ রানে বিদায় ম্যাক্সওয়েলের।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে 

উপরে