আপডেট : ১৬ মার্চ, ২০১৬ ০৯:২৮

আজ পাকিস্তানের মুখোমুখি বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক
আজ পাকিস্তানের মুখোমুখি বাংলাদেশ

সুপার টেনে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আজ পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। প্রথম পর্বের ধারাবাহিকতা ধরে রেখে জয় দিয়েই টাইগাররা সুপার টেন পর্ব শুরু করতে চায় বলে জানিয়েছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা।

অন্যদিকে বাংলাদেশকে সমীহ করলেও, দলগত পারফরম্যান্স দিয়ে নিজেদের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানও জয় পেতে চায়। কলকাতার বিখ্যাত ইডেন গার্ডেনসে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে তিনটায়।

ধর্মশালা পর্ব শেষ। এবার টাইগারদের মিশন সুপার টেন। যেখানে প্রথম ম্যাচেই প্রতিপক্ষ সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তান। এশিয়া কাপে যে দলটির বিপক্ষে জয়ের স্মৃতিটা হয়তো এখনো সতেজ ক্রিকেটারদের। তারওপর খেলাটা হবে ঐতিহ্যবাহী ইডেন গার্ডেনসে। দীর্ঘ ২৫ বছর পর যে মাঠে আবারো লাল-সবুজ জার্সি গায়ে নামবে বাংলাদেশ।

গত এপ্রিলে ১৬ বছর পর পাকিস্তানের বিপক্ষে জয় পায় টাইগাররা। এরপর থেকে পাকিস্তানকে পেলেই টাইগাররা হয়ে ওঠে দুরন্ত-দুর্বার। সবশেষ ৩ ওয়ানডে ও ২টি টোয়েন্টির সবগুলোতেই আছে জয়। তারপরও প্রতিপক্ষকে সমীহ করছে বাংলাদেশ। কারণ দলটার নাম পাকিস্তান, যাদের পাশে তকমা আনপ্রেডিক্টেবল। তবে বাংলাদেশের লক্ষ্য যে জয় তা জানিয়েই রেখেছেন টাইগার অধিনায়ক।

সাকিব ও মাশরাফি ছাড়া বাংলাদেশের স্কোয়াডের বাকি সবার জন্যই ইডেন হবে অভিজ্ঞতা নতুন। এছাড়াও টাইগার ভক্তদের জন্য স্বস্তি, চোট কাটিয়ে দলে ফিরতে প্রস্তুত কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান। অনুশীলনে পুরো রান আপে বল করেছেন এই পেসার। এছাড়াও দুর্দান্ত ফর্মে থাকা তামিম ইকবাল পিএসএলে এই পাকিস্তানি বোলারদের জন্য ছিলেন মূর্তিমান আতঙ্ক।

টি টোয়েন্টিতে সবচেয়ে বেশী ম্যাচ খেলা ও জয়ের রেকর্ড আছে পাকিস্তানের। তারপরও বিশ্ব আসরে প্রথম ম্যাচে মাঠে নামার আগে সতর্ক টি টোয়েন্টির সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে বাংলাদেশকে সমীহের চোখেই দেখছে তারা। যদিও তাদের জন্য চিন্তার কারণ অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদির অসুস্থতা। তারপরও কোচের ভাবনায় শুধুই জয়।

পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দলের কোচ ওয়াকার ইউনিস বলেন, 'গত দেড় দু'বছর বাংলাদেশ যেভাবে খেলছে তারা যে কোন দলকে হারানোর সামর্থ্য রাখে। এটা বড় মঞ্চ, এখানেও নিশ্চয়ই তারা নিজেদের প্রমাণের জন্য মুখিয়ে থাকবে। তবে আমরাও প্রস্তুত। ইতিবাচক ক্রিকেট খেলবে আমার ছেলেরা।'

বিশ্ব টি টোয়েন্টিতে কখনোই পাকিস্তানকে হারাতে পারেনি বাংলাদেশ। এবার ইডেনে নিশ্চয়ই সেই ইতিহাসটাও রচনা করতে চাইবে মাশরাফিরা।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে