আপডেট : ১৪ মার্চ, ২০১৬ ১৯:০৮

অনেক বড় তারকার চেয়েও এগিয়ে তামিম

স্পোর্টস ডেস্ক
অনেক বড় তারকার চেয়েও এগিয়ে তামিম

আন্দ্রে অ্যাডামসের ওই বলটি পায়েই লাগতে হবে! ব্যাটে লাগলেই তো আর এমন আক্ষেপে পুরতে হতো না রিকি পন্টিংকে। ইতিহাসের প্রথম আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ইনিংসের শেষ ওভারের তৃতীয় বলে দৌড়ে ২টি লেগ বাই নিয়েছিলেন। ইনিংস শেষে দেখা গেল ৯৮ রানে অপরাজিত আছেন অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক! একটুর জন্য সেঞ্চুরি পেলেন না পন্টিং। সেটিও কি না প্রথম ম্যাচটিতেই!

টি-টোয়েন্টিতে এরপর আরও ১৫টি ইনিংস খেলেছেন, কিন্তু আর সেঞ্চুরির ধারে কাছে যেতে পারেননি পন্টিং। সেদিন পন্টিং সেঞ্চুরি না পেলেও আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ঠিকই ১৮ জন ব্যাটসম্যান সেঞ্চুরি পেয়েছেন। গতকাল ওমানের বিপক্ষে তামিম ইকবাল এই ছোট তালিকার সর্বশেষ নাম। টি-টোয়েন্টির অনেক বড় বড় তারকাই আছে তামিমের সঙ্গে। ক্রিস গেইল, শেন ওয়াটসন, ব্রেন্ডন ম্যাককালাম, ফ্যাফ ডু প্লেসি, তিলকারত্নে দিলশানসহ অনেকেই। তারকা নন এমন দুই-একটি নামও আছে এখানে। আফগানিস্তানের মোহাম্মদ শেহজাদ, হংকংয়ের বাবর হায়াত, স্কটল্যান্ডের রিচি বেরিংটন।

একটু ভালোভাবেই তাকান তো নামগুলোর দিকে। কোনো কিছু বুঝতে পারছেন? কিছু নামের অনুপস্থিতি চোখে পড়ছে কি? টি-টোয়েন্টির আরও কিছু বড় বড় নাম মনে করে নেওয়া যাক একটু—বিরাট কোহলি, ডেভিড ওয়ার্নার, মহেন্দ্র সিং ধোনি, এবি ডি ভিলিয়ার্স, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, এউইন মরগান। বিশ্বের নানা প্রান্তের বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ মাতিয়ে বেড়ানো এসব খেলোয়াড়ের কারওরই নেই আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরির রেকর্ড!

কোহলি ও ওয়ার্নারের দুর্ভাগ্যই বলতে হবে। দুজনেরই ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৯০ রান। দুজনই ওই ম্যাচে অপরাজিত ছিলেন। মরগান (৮৫) ও ডি ভিলিয়ার্সও (৭৯) তা-ই। অস্ট্রেলিয়ান হার্ড হিটার ম্যাক্সওয়েল ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৭৫ করার পর আউট হয়ে গিয়েছিলেন। এঁরা তো তবু বলতে পারবেন আর কিছু না হোক, ফিফটি তো আছে বেশ কয়েকটি। টি-টোয়েন্টিতে ফিফটিও বা কম কী!


ভারতীয় অধিনায়ক ধোনি কিন্তু সেই দাবিও করতে পারবেন না। ৬৩টি ম্যাচ খেলেও এখনো ফিফটি পর্যন্ত করতে পারেননি তিনি, সর্বোচ্চ ৪৮!

কালকের ইনিংসটি দিয়ে তামিম তাই টি-টোয়েন্টির অনেক বড় বড় নামকে ছাপিয়ে গেলেন এক দিক দিয়ে। এর মধ্যে এ সময়ের সবচেয়ে আলোচিত দুই ব্যাটসম্যান ডি ভিলিয়ার্স ও কোহলির নামটাই চোখে পড়ছে বেশি। এই দুজনেরও আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে সেঞ্চুরি নেই, হয়ে গেল তামিমের।

পন্টিংয়ের দুর্ভাগ্য নিয়ে লেখাটি শুরু হয়েছিল, তা দেখে লুক রাইট একটু আপত্তি করতেই পারেন। এই ইংলিশ ওপেনার যে পন্টিংয়ের চেয়েও এক কাঠি এগিয়ে। ২০১২ বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৯৯ রানে অপরাজিত ছিলেন রাইট! ‘বেচারা’ শব্দটির জন্ম বোধ হয় তাঁর জন্য হয়েছিল! (সূত্র-প্রথম আলো)

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আইএম

 

উপরে