আপডেট : ১০ মার্চ, ২০১৬ ১১:৩৩

আইসিসির সন্দেহের তালিকায় তাসকিন-সানির বোলিং অ্যাকশন!

স্পোর্টস ডেস্ক
আইসিসির সন্দেহের তালিকায় তাসকিন-সানির বোলিং অ্যাকশন!

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল টি টোয়েন্টি ক্রিকেটে এখন নতুন অধ্যায় পার করছে। টি টোয়েন্টিতে টাইগারদের সাম্প্রতিক সাফল্য প্রকৃতপক্ষেই চোখে পড়ার মত। কিন্তু এবার বাংলাদেশ দলের জন্য একটি বড় দুঃসংবাদই হয়তো অপেক্ষা করছে সামনে।

বুধবার টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভারতের ধর্মশালায় টাইগার বাহিনী মুখোমুখি হয় আইসিসির সহযোগী দেশ হল্যান্ডের। এ ম্যাচে মাশরাফিরা ৮ উইকেটে জয় লাভ করলেও বড় ধরনের দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দেখা দিয়েছে ম্যাচে দারুণ বোলিং করা পেসার তাসকিন আহমেদ ও বাঁহাতি স্পিনার আরাফাত সানির বোলিং। ম্যাচ শেষে নিজেদের সন্দেহের কথা বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদকে জানিয়েও দিয়েছেন আম্পায়াররা।

তবে কাল রাত পর্যন্ত আম্পায়াররা তাঁদের সন্দেহের কথা আনুষ্ঠানিকভাবে জানাননি বলে জানা গেছে। যা জানানোর, আনুষ্ঠানিকভাবে আইসিসিই জানাবে।

নিয়ম অনুযায়ী বোলিং অ্যাকশন নিয়ে সন্দেহ না হলে এ নিয়ে আলোচনা করারই কথা নয় আম্পায়ারদের। সন্দেহ প্রকাশ করা মানেই সেটি আনুষ্ঠানিক। তবে বোলিং অ্যাকশন সন্দেহজনক হলেও পরবর্তী অন্তত ২৮ দিন বোলিংয়ে বাধা থাকে না। নিয়ম অনুযায়ী সন্দেহ প্রকাশের ১৪ দিনের মধ্যে সংশ্লিষ্ট বোলারকে আইসিসি অনুমোদিত কোনো পরীক্ষাগারে অ্যাকশনের পরীক্ষা দিতে হবে। পরীক্ষার রিপোর্ট আসে পরবর্তী ১৪ দিনের মধ্যে। রিপোর্টে অ্যাকশনকে অবৈধ বলা হলে অ্যাকশন শোধরানো পর্যন্ত বল করতে পারেন না ওই বোলার।

কাল মাত্র ২ ওভার বোলিং করেছেন সানি, উইকেট পাননি একটিও। উইকেট পাননি তাসকিনও, তবে ৪ ওভারে মাত্র ২১ রান দিয়ে ডাচদের বেঁধে রাখার কাজটা ভালোভাবেই করেছেন তাসকিন।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে