আপডেট : ৯ মার্চ, ২০১৬ ১৬:৩৬

তামিমের অর্ধশতক, বাংলাদেশ ১০৯/৩

স্পোর্টস ডেস্ক
তামিমের অর্ধশতক, বাংলাদেশ ১০৯/৩

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে নেদাল্যান্ডসের বিপক্ষে ব্যাটিং করছে বাংলাদেশ। ১০.৫ ওভারে ৭৮ রানের মাথায় তিন উইকেট হারিয়ে ফেলেছে টাইগাররা। একে একে ফিরে গেছেন সৌম্য, সাব্বির ও সাকিব আল হাসান। ১৪ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের ১০৯ রান। একপ্রান্ত আগলে রেখে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিচ্ছেন তামিম ইকবার। ৪১ বলে ৫৯ রানে ব্যাট করছেন তিনি।

বুধবার হিমাচল প্রদেশ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে টস জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান ডাচ অধিনায়ক পিটার বোরেন। ওপেনিংয়ে নেমে শুরুতে দেখেশুনে খেলন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার। ৩ ওভারে ১৮ রান তুলেন তারা। চতুর্থ ওভারের প্রথম বলে আউট হন সৌম্য। ভ্যান ম্যাকরেনের বলে উইকেট কিপার ওয়েসলি ব্যারাসির হাতে কাচ তুলে সাজঘরে ফিরেন সৌম্য। আউট হওয়ার আগে ১৩ বলে ১৫ রান করেন তিনি।
এরপর ক্রিজে আসেন সাব্বির। তাকে নিয়ে ৫.২ ওভারে ৪২ রানের পার্টনারশিপ গড়েন তামিম। তবে ৮.৩ ওভারে দলীয় ৬০ রানের মাথায় ভ্যান ডার মারে'র বলে আউট হন সাব্বির (১৫)। কিছুক্ষণ পর ফিরে যান সাকিব আল হাসানও (৫)। ১০.৫ ওভারে পিটার বোরেনের বলে ক্যাচ তুলে বিদায় নেন তিনি। একপ্রান্ত আগলে রেখে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিচ্ছেন তামিম। ৩৯ বলে ৫৯ রানে ব্যাট করছেন তিনি। তামিমকে সঙ্গ দিচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ। 

নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে একাদশে বাংলাদেশ দলে রয়েছে তিন পেসার। এছাড়া দলে ঢুকেছেন নাসির হোসেন।

ডাচদের বিপক্ষে ইতিহাস খুব একটা ভালো নয় বাংলাদেশের। হেড টু হেড লড়াইয়ে দু’দলই সমানে সমান। ওয়ানডে সংস্করণে দুবার মোকাবেলা করেছে দল দুটি। এর মধ্যে দু’দল একটি করে ম্যাচ জিতেছে। একই ঘটনা টি-টোয়েন্টিতেও। ২০১২ সালে দুই ম্যাচ মোকাবেলা করে একটি করে ম্যাচ জিতেছে দুই দল। তাই সামর্থ্য ও শক্তির বিচারে যত পার্থক্যই থাকুক, ইতিহাস বলে সমান কথা।

তবে ইতিহাস যাই বলুক। বর্তমান বাংলাদেশ অনেক বদলে গেছে। ওয়ানডেতে বড় বড় দৈত্য বধের পর এখন মাশরাফিরা টি-টোয়েন্টিতেও অনেক ধারাবাহিক। সদ্য সমাপ্ত এশিয়া কাপে শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তানের মত শক্তিশালী দলের বিপক্ষে দারুণ জয় পেয়েছে। টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষে থাকা ভারতের বিপক্ষেও সমান তালে লড়ে হেরেছে। তাই সাম্প্রতিক সাফল্য ও শক্তির বিচারে অনেক এগিয়ে বাংলাদেশ। আত্মবিশ্বাসী টাইগাররা বিশ্বকাপেও শুভসূচনা করবে এমনটাই আশা টাইগার ভক্তদের।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ, নাসির হোসেন, মাশরাফি বিন মুর্তজা, আল আমিন হোসেন, আরাফাত সানি ও তাসকিন আহমেদ।

উপরে