আপডেট : ৭ মার্চ, ২০১৬ ১৫:২৪

হতাশ নন মাশরাফি, বিশ্বকাপের আগে বাড়তি সতর্ক

স্পোর্টস ডেস্ক
হতাশ নন মাশরাফি, বিশ্বকাপের আগে বাড়তি সতর্ক

প্রত্যাশা ও প্রাপ্তির মধ্যে মেলবন্ধন ঘটাতে পারেনি বাংলাদেশ। ক্রিকেটপাগল জাতিকে এশিয়া কাপের ট্রফি উপহার দিতে পারেননি মাশরাফি বিন মর্তুজা। তবে হতাশ নন টাইগার অধিনায়ক, রঙিন ভবিষ্যতের পানে তাকিয়ে রয়েছেন তিনি। যদিও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব খেলতে যাওয়ার আগে বেশ সতর্ক মনে হলো বাংলাদেশ অধিনায়ককে।

৮ মার্চ মঙ্গলবার নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ম্যাচ খেলবে টাইগাররা। তার আগে সতীর্থদের ইতিবাচক থাকার পরামর্শ দিলেন মাশরাফি।  ৬ মার্চ রোববার ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি বলেন, “সদ্য শেষ হওয়া এশিয়া কাপ থেকে অনেক ইতিবাচক বিষয় গ্রহণ করতে পারি আমরা। ফাইনাল খেলাটাও ছোট কোনো কৃতিত্ব নয়। কিন্তু আর মাত্র দুই দিন বাদেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব খেলতে হবে আমাদের। প্রথমে সেখানে চূড়ান্ত পর্ব নিশ্চিত করতে হবে, তারপর মৃত্যুকূপে (ডেথ গ্রুপে) অন্যান্য দলগুলোকে মোকাবেলা করতে হবে। এজন্য মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকতে হবে আমাদের। এটা নিশ্চিত করতে হবে যে এশিয়া কাপের ফাইনাল হারাটা দলের ওপর নেতিবাচক কোনো প্রভাব ফেলেনি। তাছাড়া ভারতের মাটিতে খেলাটাও হবে চ্যালেঞ্জিং।”

ভক্তদেরও দলকে নিয়ে সংযমী হওয়ার পরামর্শ দেন মাশরাফি। তিনি বলেন, “আমি জানি তারা তাদের সব কাজ দূরে সরিয়ে রেখে ফাইনাল দেখতে বসেছিল। সবার প্রত্যাশা ছিল আমরা তাদের স্মরণীয় একটা উপলক্ষ উপহার দেব, শিরোপা ঘরে তুলবো। শেষ পর্যন্ত সেটা হয়নি। কিন্তু আমাদের কিন্তু চমৎকার একটা দল আছে। সুতরাং আশা হারাবেন না, আমাদের বিষয়ে একটু সংযমী হউন। আজকে আমরা যদি আরো ২০ রান বেশি করতে পারতাম তাহলে প্রতিদ্বন্দ্বিতাটা আরো বেশি হতো। টস খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে, আর ম্যাচের দ্বিতীয় অংশে উইকেট বেশ ব্যাটিংবান্ধব হয়ে দাঁড়ায়।”

নতুন আরেকটি টুর্নামেন্টে যে নতুনভাবে শুরু করতে হবে সেটাও জানিয়ে দেন মাশরাফি। তিনি বলেন, “টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে একেবারে শূন্য থেকে শুরু করতে হবে আমাদের। আমাদের ভালো একটা দল আছে, পর্যাপ্ত আত্মবিশ্বাসও আছে। কিন্তু সবাইকে এটাও মনে রাখতে হবে টি-টোয়েন্টি এমন একটা খেলা যেখানে প্রত্যেকটা ম্যাচ জেতা খুব দুরুহ।”

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে