আপডেট : ৬ মার্চ, ২০১৬ ১৮:৩২

ক্রিকেট জ্বরে কাঁপছে জাতি

রেজা করিম
ক্রিকেট জ্বরে কাঁপছে জাতি

ঈদের চাঁদের অপেক্ষার মতো অধীর প্রতীক্ষায় বাংলাদেশ। কখন বাজবে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা, কখন মাঠে গড়াবে এশিয়া কাপে বাংলাদেশ-ভারত ফাইনাল। টিকিট নিয়ে হতাশা থাকলেও ভক্ত-সমর্থকরা সব প্রস্তুতি শেষ করেছেন। টিম টাইগার্সের জন্য শুভ কামনা জানিয়ে খেলা শুরুর অপেক্ষায় আছেন সবাই।

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার এই ফাইনাল খেলা নিয়ে সারাদেশ যেন ক্রিকেট জ্বরে আক্রান্ত।

এই জ্বর বাংলাদেশ টিমের প্রতি অদম্য ভালবাসার, এই জ্বর ফাইনালে এশিয়া কাপ জেতার অনুপ্রেরণার।

অবাল-বৃদ্ধ-বনিতা দেশের সকল শ্রেণীর মানুষ অকুণ্ঠ সমর্থন ও ভালবাসায় সিক্ত করেছে বাংলাদেশ টিমকে। সকলের একটিই চাওয়া বাংলাদেশ ভারতের বিরুদ্ধে বাঘের মত লড়ে এশিয়া কাপ ছিনিয়ে আনবেই।

আজকের সন্ধ্যার এ খেলাকে ঘিরে রাজধানীসহ সারাদেশ সেজেছে দেশের পতাকা ও বাংলাদেশ টিমের জার্সির সাজে। পতাকা ও জার্সির দোকানগুলোতে ভিড় লেগেই আছে। খেলার আগে শেষ মুহুর্তে চলছে জার্সি আর পতাকা কেনার ধুম।

রাজধানী জুড়ে যখন ক্রিকেট প্রেমী মানুষের উত্তেজনা তখন বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম মুখোমুখি হয়েছিল বিভিন্ন পেশাজীবি মানুষের সঙ্গে। এসময় তারা তাদের অভিব্যক্তি ও প্রত্যাশা নানাভাবে ব্যক্ত করেছেন বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম এর কাছে।

রাজধানীর উত্তরার শাহীন শেখ নামের এক ফাস্টফুড ব্যবসায়ী তার প্রত্যাশার কথা জানিয়ে বলেন, ভারতের বিরুদ্ধে এশিয়া কাপের ফাইনালে বাংলাদেশ আজ অবশ্যই জিতবে।যদিও ভারত টি-২০ তে এক নম্বর দল। তারপরেও বাংলাদেশ যেহেতু ফরমে আছে সেজন্য অবশ্যই জিতবে।

প্রতিদিন দোকান ১০ টার দিকে বন্ধ করলেও আজ সন্ধ্যার আগেই বন্ধ করে বাড়িতে সবার সঙ্গে খেলা দেখবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

হারুনুর রশীদ নামের এক রিকশাওয়ালাতো দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে জানালেন বাংলাদেশ জিতবেই। তিনি বলেন, একদিকে মুস্তাফিজ নাই অন্যদিকে সাকিব ইনজুরিতে পড়ার খবরে অনেকটা আতঙ্কিত ছিলাম।কিন্তু আজকে রিকশা নিয়ে বের হবার আগে পত্রিকা পড়েছি সাকিব বলেছে, দলে আছি থাকব আর দেশকে উপহার দিব এশিয়া কাপ।

ভারতের বলিং লাইন দুর্বল তাই ব্যাটিং একটু ভাল করলেই বাংলাদেশ জিতবে বলে জানান তিনি।

এদিকে টিকেট না পাওয়ায় আক্ষেপ প্রকাশ করেছেন স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকের রিলেশনশীপ ম্যানেজার শাফায়াত হোসেন। তিনি বলেন, প্রথমবারের মত এশিয়া কাপ ফাইনাল বাংলাদেশ খেললেও মাঠে বসে খেলাটি দেখতে পারছিনা।

কি আর করার ঘরে বসেই এমন উত্তেজনাকর ম্যাচটি দেখতে হবে বলে জানান তিনি।

উত্তরা পুর্ব থানার এসআই জামাল হোসেন জানিয়েছেন দায়িত্ব থাকার কারণে সবসময় খেলা দেখা হয়না। তবে ডিউটির ফাঁকে ফাঁকে টিভির স্ক্রিনে চোখ বোলাতে ভুলিনা। বাংলাদেশ দলের জন্য অনেক অনেক শুভ কামনা জানিয়ে তিনি বলেন, বাংলাদেশ আজ অবশ্যই এশিয়া কাপ জিতে নতুন এক ইতিহাস রচনা করবে।

সপ্তম শ্রেণির অর্ণব হাসানতো জানালেনই আগে পরে কোন কথা নেই বাংলাদেশ জিতবেই জিতবে।

এদিকে অন্যরকম এক উৎসব আবেশে ভরে গেছে মিরপুরে স্টেডিয়াম এলাকা। ইতিহাসের সাক্ষী হতে মানুষ দলে দলে ভিড় করছে স্টেডিয়াম ও তার আশপাশের এলাকায়। বাংলাদেশ বাংলাদেশ, মাশরাফি মাশরাফি, টাইগার সহ নানা শ্লোগানে মুখরিত করে রেখেছে পুরো এলাকা।

এদিকে খেলাকে কেন্দ্র করে ক্রিকেটপ্রেমীরা নানা আলপনায় ভরিয়ে তুলছে তাদের শরীর। রাজধানীর বিভিন্ন পয়ন্টে আলপনা অংকনকারীদের দেখা যাচ্ছে।শাহবাগের আলপনা অংকন কারী শহিদুর রহমান জানান, খেলাকে কেন্দ্র করে রাজধানীজুড়ে অন্যরকম এক পরিবেশ বিরাজ করছে।ক্রিকেট প্রেমীরা সবাই বাংলাদেশের পতাকা, বাঘসহ নানা ধরণের আলপনায় রাঙিয়ে তুলছে তাদের শরীর।

মিরপুরের জার্সি ব্যবসায়ী আব্দুল করিম মোল্লা জানিয়েছেন, আজকের এ ম্যাচকে কেন্দ্র করে বেশ জমজমাট ব্যবসা হচ্ছে কয়েকদিন ধরে। আমাদের সকলের একটাই চাওয়া বাংলাদেশ জিতবেই জিতবে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে

উপরে