আপডেট : ৬ মার্চ, ২০১৬ ১৩:৩১

উত্তপ্ত এ পার-ও পার, কয়েক ঘণ্টা পরই শুরু ধোনি-মাশরাফিদের লড়াই

স্পোর্টস ডেস্ক
উত্তপ্ত এ পার-ও পার, কয়েক ঘণ্টা পরই শুরু  ধোনি-মাশরাফিদের লড়াই

আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা। তার পরই শুরু হয়ে যাবে ধোনি-মাশরাফিদের লড়াই। ঢাকা যেন সকাল থেকেই উত্তেজনায় ফুটছে। ফাইনালে জয়ের মুকুট শেষ পর্যন্ত কার মাথায় উঠবে এই নিয়ে এ পার-ও পার যেন এক হয়ে গিয়েছে। এরা বলে আমরাই জিতব, ওরা বলে আমরা। মাঠের বাইরের যুদ্ধের চিত্রটা অনেক বেশি আবেগপূর্ণ ও উত্তেজনাময়। মাঠের ভিতরে মাশরাফিরা ভারত বধ করবেন, না কি ভারত মাশরাফিদের— এ আলোচনার অন্ত নেই।

সোশ্যাল মিডিয়াতেও আজকের খেলা নিয়ে অনবরত বাকযুদ্ধ ঘটে চলেছে। ফাইনালে ওঠার পর থেকেই তেতে রয়েছেন মাশরাফি-মুর্তাজা-তামিমরা। যে ভাবে এশিয়া কাপ থেকে পাকিস্তান এবং শ্রীলঙ্কাকে একেবারে মাঠের বাইরে ছুড়ে ফেলে দিল, তা প্রশংসনীয়। কিন্তু এই আসাধারণ পারফরম্যান্সের জন্য আবেগের জোয়ারে ভাসতে চাননা মাশরাফিরা। বরং অনেক বেশি কুল থেকে মাঠের ভিতরে যুদ্ধ চালিয়ে যেতে চান। কারণ প্রতিপক্ষ যে ভারত! বাঘেরা জানাচ্ছেন, সচেতন, সাবধান ঠিকই, কিন্তু ভয় নয়, বুক চিতিয়েই ধোনির ছেলেদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবেন তাঁরা।

ধোনির তিন অস্ত্রকে (বুমরা, নেহরা, অশ্বিন) সামলানোর জন্য ইতিমধ্যেই স্ট্র্যাটেজি তৈরি করে ফেলেছেন তাঁরা। সারা ঢাকা জুড়ে এখন একটাই স্লোগান— পাকিস্তান গেছে, শ্রীলঙ্কা গেছে, এ বার ভারতের পালা। ২০১২-র এশিয়া কাপে এই শের-ই-বাংলা স্টে়ডিয়ামেই ভারতকে ৫ উইকেটে হারিয়েছিল বাঘেরা। আজ তার পুনরাবৃত্তি ঘটাবে বাঘেরা নাকি এ বার সেই হারের বদলা নেবে ভারত! জানার জন্য অপেক্ষা করতে হবে আরও কয়েকটা ঘণ্টা।

উপরে