আপডেট : ৫ মার্চ, ২০১৬ ০৪:০৪

"বাংলাদেশ এশিয়া কাপ জিতলে, লুঙ্গি পরে বিজয় মিছিল"

স্পোর্টস ডেস্ক

এশিয়া কাপে টি২০ ফাইনালে কে কাকে হারাবে সে হিসাব মিলাতে শুরু করে দিয়েছে ক্রিকেট প্রেমিরা। খেলা মাঠে গড়ানোর আগেই সবাই যার যার প্রিয় দলকে জিতাতে মরিয়া। শুনেছি পাকিস্তান দল টাইগারদের কাছে হারায় এক সর্মথক নিজের সাধের জীবনটাই নাকি কোরবান করে দিয়েছেন।টাইগার ভক্তরাও কোন অংশে কম নয়।

মাশরাফি যেন হারতে জানে না, একের পর এক সাফল্য দিয়ে যাচ্ছেন বাংলাদেশের ক্রিকেট প্রেমিদের। গত আশরে এশিয়া কাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে টাইগার বাহিনী ৫ বল হাতে রেখেই ৫ উইকেটে জয় পায়। আর এর মাধ্যমেই দ্বিতীয়বারের মতো এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠে বাংলাদেশ। আগামিকাল ৬ মার্চ ভারতের বিরুদ্ধে শিরোপা লড়াইয়ে মাঠে নামবে টাইগাররা। তাই টাইগার ভক্তদের উচ্ছ্বাসের যেন কোনো কমতি নেই।

প্রিয় দলকে সর্মথন ও উৎসাহ দিতে নর্থ সাউথ, ইষ্ট ওয়েষ্ট ও ইন্ডিপেন্ডেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫ শিক্ষার্থি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি ইভেন্ট খুলেছেন, যার নাম দেওয়া হয়েছে "বাংলাদেশ এশিয়া কাপ জিতলে, লুঙ্গি পরে বিজয় মিছিল"। ইভেন্টের বিজয় মিছিল শুরু হবে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির ৮ নাম্বার গেট থেকে। ঐখান থেকে শুরু করে আইইউবি, ব্যাংক এশিয়া হয়ে বসুন্ধরা গেইটে গিয়ে মিছিল শেষ হবে। এরই মধ্যে ইভেন্টে প্রায় ২২'শ ফেসবুক ব্যবহারকারী গোয়িং দিয়েছেন।

আয়োজকদের একজন নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির বিবিএর ছাত্র সেখ ফয়ছানুল হক ইভান  "বাংলাদেশ এশিয়া কাপ জিতলে, লুঙ্গি পরে বিজয় মিছিল"-এর পেজে লিখেছেন, ‘‘লুঙ্গি হচ্ছে বাংলার মানুষের প্রতিক বহনকারী বস্ত্র। তার উপর বাংলাদেশের বিজয়টা হয়ত আমাদের আনন্দ থেকেও আরও বেশি কিছুই দিবে। তাই এই আনন্দ এবং বাংলা মায়ের চিহ্ন একসাথে বহন করার জন্যই আমাদের এই ভিন্ন আয়োজন।"লুঙ্গি পরে বিজয়ের নাচ" । জানিনা জিতব কি জিতবনা। তবে আমরা বাঙ্গালীরা সব সময় আশাবাদী। ইন শা আল্লাহ বিজয় আমাদেরই হবে ‘’ 

ইভান বলেন, ‘‘ও আচ্ছা, লুঙ্গি পরার সাথে সাথে বিজয় মিছিলকে আরও প্রান দেওয়ার জন্য পতাকা, ঢোল, বাসন, থালা, বালতি, বাশি যা ই পারেন নিয়ে বের হয়ে যাওয়ার অনুরোধ করছি। এইটা তো আর রাজনৈতিক মিছিল নয়, এইটা নিজের দেশের বিজয় উদযাপন মিছিল। দেখা হবে বিজয়ে, লাল সবুজের পতাকা তলে।’’

এবং তিনি টাইগার ভক্তদের উদ্দেশ্য করে বলেছেন, ‘আমাদের এই আয়োজন ঢাকায় বসুন্ধরা আবাসিকের জন্য হলেও এ রকম আয়োজন আপনারা নিজেদের শহরের নিজেদের এলাকায় ও করতে পারেন।’ 

বিডিটাইমস৩৬৫.কম/এনএইচএ

উপরে