আপডেট : ৪ মার্চ, ২০১৬ ২০:০৮

৭১’র জন্য পাকিস্তান প্রায়শ্চিত্ত করছে: পাক ক্রিকেট সমর্থক বশির

স্পোর্টস ডেস্ক
৭১’র জন্য পাকিস্তান প্রায়শ্চিত্ত করছে: পাক ক্রিকেট সমর্থক বশির

বশির আহমেদ। পাকিস্তান ক্রিকেটের একজন আইকন সাপোর্টার। দুনিয়াব্যাপী বিভিন্ন মাঠে তিনি পাকিস্তানকে সমর্থন যোগান। শুধু পাকিস্তানকে সমর্থন নয়, পাক-ভারত মৈত্রীর বার্তায়ও তিনি দুনিয়ার এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে বয়ে বেড়ান। চলমান এশিয়া কাপ ক্রিকেটে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এই পাকিস্তানী নাগরিককে জোর করে বাংলাদেশের পতাকা পরিয়ে দেবার অভিযোগ উঠে।

হেনস্তা করার যে অভিযোগ উঠেছে সে ব্যাপারে কথা বলেন বশির আহমেদ। সাংবাদিকদের ‘বশির চাচা’ বলেছেন, কেউ আমাকে জোর করে বাংলাদেশের পতাকা পরায়নি (নোবডি ফোর্সড), আমি বাংলাদেশকে ভালবাসি, এখানকার মানুষ খুবই ভাল। এমনকি ফাইনালে বাংলাদেশের জয় নিয়েও আমি আশাবাদী।

এ সময় বশির আহমেদ বলেন, আমি বাংলাদেশকে ভালবাসি। ১৯৭১ সালে আমি খুব ছোট ছিলাম। আপনি জানেন, এর জন্য আল্লাহ তায়ালা পাকিস্তানকে শাস্তি দিয়েছে। ১৯৭১ সালে যা ঘটেছিল তার জন্য আমি দুঃখিত।

আপনাকে জোর-জবরদস্তি করে বাংলাদেশি পতাকা পরানোর জন্য কেঁদেছেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, না না, আমি খুশি, আমি কাঁদিনি। তবে, পাকিস্তান ম্যাচে হেরে গিয়েছে একটা কষ্ট তো থাকতেই পারে। আমি পাকিস্তানে জন্মগ্রহণ করেছি। কিন্তু বাংলাদেশি লোকজন খুবই খুশি, তারা খুবই ভাল, আমিও খুশি। ইনশায়াল্লাহ বাংলাদেশ জিতবে। তিনি আরও বলেন, আমি ধোনিকে ভালবাসি। কিন্তু বাংলাদেশ জিতবে বলে আশা করি।

প্রসঙ্গ, ০২ মার্চ বুধবার এশিয়াকাপ টি-টোয়িন্টিতে বাংলাদেশ-পাকিস্তানের খেলার পরে বশির আহমেদের গায়ে জোর করে বাংলাদেশি পতাকা পরানো হয়েছে বলে ফেসবুকে কিছু ছবি ছড়িয়ে পড়ে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যাওয়া কয়েকটি ছবিতে দেখা যায়, আওয়ামী লীগের এমপি ইলিয়াস মোল্লার উপস্থিতিতে সেই পাকিস্তানি সমর্থক বশির আহমেদ কাঁদছেন।

এমন অবস্থায় তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। তবে এ ঘটনাকে পুরোপুরি ভিত্তিহীন বলে দাবী করলেন খোদ বশির আহমেদ নিজেই। তিনি জানান, তার সাথে এরুপ কোনোধরনের জোর জবরদস্তি করা হয়নি। এছাড়াও যারা এসব ছড়াচ্ছে তারা না জেনেই ছড়াচ্ছে বলে মনে করেন তিনি। বশির আহমেদের ভাষ্যমতে, 'আমার নিজস্ব কিছু কস্টিউম আছে। এমন তো না এর আগে বাংলাদেশের পতাকা নিয়ে আমি গ‍্যালারিতে ছিলাম না। আমাকে কোন জোর জবরদস্তি করা হয়নি। যারা এসব ছড়াচ্ছে তারা এসব না বুঝেই ছড়াচ্ছে।'

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে