আপডেট : ৪ মার্চ, ২০১৬ ১৯:০৭

এ যাত্রায় অধিনায়ক থেকে যাচ্ছেন আফ্রিদি

স্পোর্টস ডেস্ক
এ যাত্রায় অধিনায়ক থেকে যাচ্ছেন আফ্রিদি

সময়টা খুব খারাপ যাচ্ছে শহীদ আফ্রিদির। নিজের ফর্ম ভালো যাচ্ছে না, দলের পারফরম্যান্সও যাচ্ছেতাই। এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠতে ব্যর্থ হওয়ার পর পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক এখন তুমুল সমালোচনার মুখে। কেউ কেউ তো শুধু অধিনায়কের পদ থেকে নয়, আফ্রিদিকে জাতীয় দল থেকেই ছেঁটে ফেলার পক্ষে। বাংলাদেশের কাছে হারের আগেই যখন এমন দাবি উঠেছিল, হারের পরের অবস্থা নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন। তবে আপাতত আফ্রিদির জন্য স্বস্তির খবর, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তাঁকেই অধিনায়ক রাখছে পাকিস্তান।
এশিয়া কাপ থেকে ছিটকে পড়ার পর খবর এসেছে, বিশ্বকাপে লজ্জাজনক পরিস্থিতি এড়াতে দলে বিরাট পরিবর্তন আনতে যাচ্ছে পাকিস্তান। বিশ্বকাপের জন্য দল ঘোষণার শেষ তারিখ পেরিয়ে গেছে, পাকিস্তানও দল দিয়ে দিয়েছে। কিন্তু এবার বিশেষ সুবিধার কারণে ৮ মার্চ পর্যন্ত দলে পরিবর্তন আনা যাবে। পাকিস্তান সেই সুবিধাই নিতে যাচ্ছে বলে খবর। যদিও এত বড় টুর্নামেন্টে শেষ পর্যন্ত দলে বড় অদল​-বদল আনার ফল আরও খারাপ হতে পারে বলেই দেশটির কেউ কেউ মত প্রকাশ করেছেন। কয়েকটি জায়গায় পরিবর্তন তো আসছেই।

তবে সেই পরিবর্তনের গিলোটিনে পড়ছেন না আফ্রিদি। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) চেয়ারম্যান শাহরিয়ার খান নিশ্চিত করেছেন, ‘আমার দুই উপদেষ্টা ইউনিস খান ও মিসবাহ-উল-হক আফ্রিদিকে সরিয়ে দেওয়ার কথা বলেছিল। কিন্তু টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সে-ই পাকিস্তানের নেতৃত্ব দেবে।’
জাতীয় দলে তাঁর অবদানের কথা ভেবেই এই ‘ছাড়’টা পিসিবি দিচ্ছে বলেও জানালেন, ‘আমরা আফ্রিদির অধিনায়কত্বের ব্যাপারে ভেবেছি, কিন্তু খুব দ্রুত কিছু করতে পারব না। আফ্রিদি গত ১৫ বছর (আসলে প্রায় ২০ বছর) পাকিস্তানে খেলে গেছে, অনেক ম্যাচও জিতিয়েছে। দলকে এত কিছু দিয়ে যাওয়া ওর মতো একজন অনুগত খেলোয়াড়কে এভাবে অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হতো বিরাট অপমানের। আমি চেয়ারম্যান হয়ে আসার সময়ই আফ্রি​দি বলেছিল ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নেতৃত্ব দিয়েই অবসর নিতে চায়।’
আফ্রিদি অবশ্য কদিন আগেই ইঙ্গিত দিয়েছেন, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষেও হয়তো খেলা চালিয়ে যাবেন। সেই ইচ্ছাটা পূরণ হবে কি না, সেটা নিশ্চয় বিশ্বকাপ শেষেই জানা যাবে!

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আইএম

 

উপরে