আপডেট : ১ মার্চ, ২০১৬ ১৯:১০

এশিয়া কাপে বড় ম্যাচে ভুল চান না আফ্রিদি

স্পোর্টস ডেস্ক
এশিয়া কাপে বড় ম্যাচে ভুল চান না আফ্রিদি

আরব আমিরাতের ১২৯ রানের জবাবে স্কোরবোর্ডে ১৭ রান তুলতেই ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলার পর ভীষণ চাপে পড়ে গিয়েছিল শহীদ আফ্রিদির দল। হুট করে দ্রুত আর এক-দুটি উইকেট কোণঠাসাই করে ফেলত তাদের। আমিরাতের অখ্যাত বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সামনে এমন কাঁপাকাঁপির পর শোয়েব মালিক আর উমর আকমলের ব্যাটিং তাঁদের রক্ষা করেছে।

দিন শেষে জয়টা বড় ব্যবধানে হলেও আমিরাতের বিপক্ষেই নিজ দলের কেঁপে যাওয়াটা ঠিক মেনে নিতে পারছেন না অধিনায়ক আফ্রিদি। দলকে সাবধান করে দিয়ে বলেছেন, এশিয়া কাপে বড় দলগুলোর বিপক্ষে সাফল্য পেতে হলে ভুলের মাত্রাটা একেবারে সর্বনিম্ন পর্যায়েই নামিয়ে নিয়ে আসতে হবে। হয়তো সামনে বাংলাদেশ বলেই সতর্ক বার্তাটা আরও বেশি করে দিলেন।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে যে হাত-পা ছড়ানোর কোনো সুযোগ নেই আফ্রিদি মানছেন তাও, ‘আমিরাতের বিপক্ষে ম্যাচটাই তো চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে গা ঢিলে দেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। আপনি মাঠে হালকা চালে খেলতে পারবেন না, সাজঘরেও আয়েশি মেজাজে থাকতে পারবেন না। এবারের এশিয়া কাপে এখনো পর্যন্ত আমরা ভুল করছি প্রচুর। বড় দলগুলোর বিপক্ষে যে ম্যাচ দুটো বাকি আছে, সেগুলোতে ভুল করলে চলবে না।’


ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ হারের পর সংবাদ সম্মেলনে আসেননি। গতকাল ম্যাচের ফল অন্য রকম হলে কী হতো কে জানে। সবচেয়ে বড় কথা, রাত বারোটার পরই ছিল আফ্রিদির জন্মদিন। আর সেই রাতেই অঘটনের শিকার হলে...! সেটিও আবার ছিল তাদের শততম আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি। যাক, সতীর্থরা বড় বাঁচা বাঁচিয়ে দিয়েছে। বিশেষ করে মালিক-আকমলের ১১৪ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিটা।

আমিরাতের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সও মুগ্ধতাই ছড়িয়েছে আফ্রিদির কণ্ঠে, ‘শুরুতেই আমিরাতের ৩ উইকেট ফেলে দেওয়ার পর মনে হয়েছিল তাদের স্কোর ৯০-১০০-এর মধ্যে থাকবে। কিন্তু আমাদের ভুল প্রমাণ করে তারা ১২৯ করে ফেলল। এটা মানতেই হচ্ছে আমিরাত দুর্দান্ত ক্রিকেটই খেলেছে।’

ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের আগে যদি আমিরাতের ম্যাচটা হতো, তাতে খুশিই হতেন আফ্রিদি, ‘এই ম্যাচটা ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের আগে হলে আমরা নিজেদের গুছিয়ে নিতে পারতাম। সূত্র: পিটিআই।

 

বিডিটাইএমস৩৬৫ডটকম/আইএম

 

উপরে