আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৫:২৩

ভারতকে আফ্রিদির হুংকার!

স্পোর্টস ডেস্ক
ভারতকে আফ্রিদির হুংকার!

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডেতে বেশ দাপট দেখালেও টি-টোয়েন্টিতে এখন পর্যন্ত খেলা ম্যাচগুলোতে পাকিস্তানের সাফল্য তলানীতে। ভারতের বিপক্ষে মোট ছয়টি টি-টোয়েন্টির মাত্র একটিতে জয় পেয়েছে পাকিস্তান। তবে অতীত পরিসংখ্যান ভুলে ভালো করার প্রত্যয় পাকিস্তান অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদির কণ্ঠে।

দীর্ঘ বিরতির পর ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে আফ্রিদি বলেন, ‘আমি মনে করি এখানকার সবাই পেশাদার ক্রিকেটার। পিএসএলে বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজিতে খেললেও তারা খুব সংগঠিত রয়েছে। আমরা ২৭ ফেব্রুয়ারি বড় একটি ম্যাচ খেলতে যাচ্ছি। ভারতের বিপক্ষে আগে কী হয়েছে সেটা আমি ভাবতে চাই না। কেননা আমি অতীতে পড়ে থাকতে চাই না। পরিকল্পনা আমরা অনুযায়ী নিজেদের খেলাটা খেলতে চাই।’

ভারতের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপ নিয়ে বুম বুম আফ্রিদির বক্তব্য, ‘ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা সচরাচর স্পিন খুব ভালো খেলে। তাদের বেশ কিছু খেলোয়াড় দারুণ ফর্মে রয়েছেন। তারা কিছু দারুণ ম্যাচ খেলে এখানে এসেছে। তবে আমাদের দলের মোহাম্মদ নেওয়াজ, মোহাম্মদ আমির, ওয়াহাব এবং মোহাম্মাদ ইরফানের মতো পেস বোলাররা দারুণ ফর্মে রয়েছে। আশা করছি ফলাফল আমাদের অনুকূলেই থাকবে।’

ভারতে অনুষ্ঠেয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর নিজের অবসরের কথা জানিয়েছিলেন আফ্রিদি। আবারও সেই প্রশ্ন উঠতে পাকিস্তান দলপতি বলেন, ‘মনে হচ্ছে এশিয়া কাপ এবং বিশ্বকাপ আমার কাছে অবসরের ভাবনার চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আমি সেগুলোর ওপরই বেশি নজর রাখছি।’

নিজ দলের বোলিং বনাম ভারতের ব্যাটিং নিয়ে আফ্রিদি বলেন, ‘এটি সর্বদাই বড় একটি ফ্যাক্টর। তারা বড় স্কোর গড়তে চাইবে। পিএসএলে ভালো করা আমাদের ব্যাটসম্যানদেরও একই লক্ষ্য থাকবে। আমরা আশা করব যেন আমাদের ভুলগুলোর পুনরাবৃত্তি না হয় এবং নিজেদের ধরন ঠিক থাকে।’

ভারত ও পাকিস্তানের সম্পর্ক নিয়ে আফ্রিদি বলেন, ‘খেলাধূলা সর্বদাই দুটি দেশের মধ্যে সম্পর্ক  উন্নয়নে ভূমিকার রাখে। মানুষ এখন দুই দেশের বৈরী সম্পর্ক চায় না। তারা বিনোদন চায়। আমার মনে হয় পাকিস্তানের মানুষ চায় ভারত সেখানে গিয়ে খেলুক। হয়তো ভারতের অনেকেও সেটা চায়। খেলাধুলার ওপর আমাদের কোনো রাজনৈতিক প্রভাব কাজে লাগানো উচিত নয়। আমাদের উচিত মানুষের দাবীকে মূল্যায়ন করা এবং সবার কাছে এই বার্তা পৌঁছে দেওয়া।’

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে