আপডেট : ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৩:১৯

প্রোটিয়াদের বৃষ্টিতে ভিজিয়ে রুদ্ধশ্বাস ম্যাচ জিতলো ইংলিশরা

প্রোটিয়াদের বৃষ্টিতে ভিজিয়ে রুদ্ধশ্বাস ম্যাচ জিতলো ইংলিশরা

ইংল্যান্ড নিজেদের ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৯৯ রান করে। দক্ষিণ আফ্রিকার লক্ষ ছিল ৪০০ রান। দক্ষিণ আফ্রিকা ৩৩.৩ ওভারেই ৫ উইকেট হারিয়ে তুলে ফেলেছে ২৫০ রান। উইকেটে ছিলেন ৯৬ বলে ১৩৮ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলা কুইন্টন ডি কক।
এরই মধ্যে শুরু হয় বৃষ্টি। রুদ্ধশ্বাস উত্তেজনায় জল ঢেলে ম্যাচটাকে ভাসিয়ে নিল তখনই। ম্যাচ আর শুরু হয়নি। ডি/এল পদ্ধতিতে প্রথম ওয়ানডেটা ৩৯ রানে জিতে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ইংল্যান্ড এগিয়ে গেল ১-০-তে।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমেই নিজেদের উদ্দেশ্য পরিষ্কার বুঝিয়ে দিয়েছিলেন ইংলিশ ওপেনাররা। মাত্র ৭.৪ ওভারেই ৬৮ রান তুলে ফেলেন জেসন রয় ও অ্যালেক্স হেলস। এরপরই আউট হয়ে যান রয়। একটুর জন্য ফিফটি হাতছাড়া হলেও ৩০ বলে ৪৮ রানের ওই ইনিংসেই গতিটা পেয়ে যায় ইংল্যান্ড। ফিফটি পেয়েছেন হেলস, জো রুট, বেন স্টোকস। তবে প্রোটিয়া বোলারদের মূল শাসনটা করেছেন জস বাটলার। মাত্র ৭৬ বলে ১০৫ করেছেন এই উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান। ৭৩ বলের সেঞ্চুরি ছোঁয়া ব্যাটসম্যান মেরেছেন ১১টি চার ও ৫টি ছক্কা। ৭৩ বলের এই সেঞ্চুরিটি বাটলারের চতুর্থ দ্রুততম সেঞ্চুরি। ৪৩তম ওভারে বাটলার আউট হওয়ার পর শেষ দিকে হাল ধরেছিলেন স্টোকস। ৩৮ বলে ৫৭ করেছেন এই অলরাউন্ডার।
এরপর ৬৭ বলে সেঞ্চুরি করে বাটলারকে জবাব দিলেন ডি কক। ক্যারিয়ারের নবম ওয়ানডে সেঞ্চুরি করা ডি কক দ্বিতীয় উইকেটে ফাফ ডু প্লেসির সঙ্গে ১৩.৫ ওভারে যোগ করেন ১১০ রান। ডু প্লেসির (৪৪ বলে ৫৫) বিদায়ের ৩০ রান পরেই আউট এবি ডি ভিলিয়ার্স (৮)। মঈন আলীকে ছক্কা মারতে চেয়েছিলেন প্রোটিয়া অধিনায়ক। কিন্তু লং অনে ডান দিকে দৌড়ে অবিশ্বাস্যভাবে এক হাতে ক্যাচ নিয়ে নেন স্টোকস। টেন ক্রিকেট, ক্রিকইনফো।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এনএ

উপরে