আপডেট : ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৫ ১৯:০১
এশিয়া কাপ ক্রিকেট

ফাইনালে উঠলে বিপত্তি বাংলাদেশের

স্পোর্টস ডেস্ক
ফাইনালে উঠলে বিপত্তি বাংলাদেশের

টানা তৃতীয় বারের মত বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এশিয়া ক্রিকেটের মহাযজ্ঞ । এটি এশিয়া কাপের ১৩তম আসর। এশিয়া কাপ আয়োজনের করার কথা ছিলো ভারতের। ২০১৬ টি-২০ বিশ্বকাপের আয়োজক হওয়ায় এশিয়া কাপের আয়োজন করছে না তারা।

এই আসরের আয়োজক হতে চেয়েছিল সংযুক্ত আরব আমিরাতও। কিন্তু টানা দুটি আসর সফলভাবে আয়োজন করায় বাংলাদেশকেই ১৩তম আসর আয়োজনের দায়িত্ব দেয় এশিয়া ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি)।

এবারের এশিয়া কাপ হবে একটু ভিন্ন ফরম্যাটে। আগে ওয়ানডে টুর্নামেন্ট হলেও এবার হবে টি-২০ টুর্নামেন্ট। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয়ে ৬ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে এশিয়া কাপের ফাইনাল।

বিপত্তিটা সেখানেই। টুর্নামেন্টের সূচিতে বড়সড় একটা ‘গোলমাল’ আছে। আর এই গোলমালে বিপাকে পড়তে পারে স্বাগতিক বাংলাদেশ। টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ ফাইনালে উঠলে টি-২০ বিশ্বকাপের সময়ের সাথে সেটা সাংঘর্ষিক হয়ে উঠতে পারে।

কেননা ৪ ও ৬ মার্চ টি-২০ বিশ্বকাপের দু’টো প্রস্তুতি ম্যাচের সূচিও নির্ধারিত হয়ে আছে বাংলাদেশের। জিম্বাবুয়ে ও হংকংয়ের বিপক্ষে ম্যাচ দু’টো হবে হিমাচল প্রদেশের ধর্মশালায়। যে কারণে এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠলে কী করবে বাংলাদেশ?বাংলাদেশ কি ফাইনালে খেলবে নাকি টি-২০ বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলছে যাবে হিমাচল প্রদেশের ধর্মশালায়? যেকোন একটিকে বেঁছে নিতে হবে বাংলাদেশকে।

বিসিবি এই সংকটে চেয়ে আছে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসির দিকে!

ক্রিকেটে অঘটন হয় সেটা সবাই জানে তবে টাইগাররা যেভাবে খেলছে তাতে স্বাগতিক বাংলাদেশর ফাইনালে উঠা অঘটনের কিছু নয়।

এই নিয়ে পঞ্চমবারের মত বাংলাদেশে আয়োজিত হচ্ছে এশিয়া কাপ। এর আগে ২০১৪, ২০১২, ২০০৮ ও ১৯৮৮ সালে এই আসরের আয়োজন হয়েছিল বাংলাদেশে। এবারও এই টুর্নামেন্টে অংশ নিবে পাঁচটি দল।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম/

উপরে