আপডেট : ১২ মে, ২০১৯ ১৭:৩৫

সন্তানের জন্য ৪৪ বছর ধরে বারো মাস রোজা রাখছেন মা

অনলাইন ডেস্ক
সন্তানের জন্য ৪৪ বছর ধরে বারো মাস রোজা রাখছেন মা

মায়ের অকৃত্রিম ভালোবাসা ও স্নেহের সঙ্গে তুলনা হয়না কোন কিছুরই। পৃথিবীতে সন্তানের জন্য সর্বোচ্চ ত্যাগ, একমাত্র মা-ই করতে পারেন। হারিয়ে যাওয়া সন্তানকে ফিরে পেয়ে মহান সৃষ্টিকর্তার সন্তুষ্টির জন্য ৪৪ বছর ধরে, বারো মাস রোজা পালন করছেন। এমনি এক মা, ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ভেজিরন নেছা।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার গোপালপুর গ্রামের বিধবা ভেজিরন নেছা। ১৯৭৫ সালে তার বড় ছেলে শহিদুল ইসলাম ১১ বছর বয়সে হারিয়ে যান। বিভিন্ন যায়গায় সন্তানকে খুঁজে না পেয়ে পাগলপ্রায় হয়ে যান এই মা। পরে সন্তানকে ফিরে পেতে আরজি করেন মহান আল্লাহর দরবারে।

মসজিদ ছুঁয়ে প্রতিজ্ঞা করেন, সন্তান ফিরে এলে সৃষ্টিকর্তার সন্তুষ্টির জন্য রোজা পালন করবেন সারাবছর। হারিয়ে যাবার দেড়মাস পর সন্তান বাড়িতে ফিরে এসে 'মা' বলে ডাক দেন। শান্তির পরশ পান ভেজিরন নেছা। এরপর থেকেই প্রতিজ্ঞা রক্ষার্থে দীর্ঘ ৪৪ বছর ধরে, বারোমাস রোজা পালন করছেন এই মমতাময়ী মা।

এলাকাবাসী জানান, অভাব অনটনের পাশাপাশি বয়সের ভারে নুয়ে পড়েছেন ভেজিরন নেছা। তারপরেও সন্তানের কল্যাণে প্রতিজ্ঞা ভঙ্গ করেননি তিনি।

বৃদ্ধা এই মা'কে বয়স্ক ভাতার কার্ড দেয়া হয়েছে জানিয়ে, তাকে সব ধরণের সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন ঝিনাইদহ মধুহাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জুয়েল আহমেদ। ৭৫ বছর বয়সী ভেজিরন নেছার ৩ ছেলে ও ৩ মেয়ে। এদের মধ্যে এক মেয়ে মারা গেছেন।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে