আপডেট : ২৪ মে, ২০১৮ ১৯:৩৫

মাদক ব্যবসায়ীর ছোড়া ককটেলে ৫ পুলিশ আহত

অনলাইন ডেস্ক
মাদক ব্যবসায়ীর ছোড়া ককটেলে ৫ পুলিশ আহত

পাবনার ঈশ্বরদীতে সন্দেহভাজন মাদকের ব্যবসায়ী ও তার সহযোগীদের ছোড়া ককটেলে পুলিশের পাঁচ সদস্য আহতের তথ্য পাওয়া গেছে। এ সময় সন্দেহভাজন মাদকের ব্যবসায়ী ধরা পড়েন। ধরা পড়া দুলাল হোসেনের কাছ থেকে ২০০টি ইয়াবা বড়ি পাওয়ার কথাও জানিয়েছে পুলিশ।

বুধবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে পাবনা-ঈশ্বরদী মহাসড়কের মধ্য অরনকোলা দিপু সরকারের পরিত্যাক্ত গুদামের সামনে এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন, টাউন ইনস্পেক্টর শেখ মতিউর রহমান, এবং চার কনস্টেবল রকিব উদ্দিন, মিজানুর রহমান, মুশিহার আলী এবং শহিদুল ইসলাম। তাদেরকে ঈশ্বরদী হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ঈশ্বরদী সার্কেল) জহুরুল হক জানান, পাবনা-ঈশ্বরদী মহাসড়কের আলহাজ্ব মোড়ের সামনে মধ্য অরনকোলা এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান চলছিল। গোপন সংবাদে পুলিশ জানতে পারে, দুই সহযোগীসহ দুলাল হোসেন দুলাল ইয়াবা নিয়ে আসছেন।

খবর পেয়ে রেশম ও তুত গবেষণা কেন্দ্রের সামনের রাস্তায় অবস্থান নিয়ে দুলালকে বহনকারী অটোরিকশা তল্লাশি চালায়। এ সময় দুলালকে আটক করা হয়।

দুই সহযোগী এ সময় পুলিশের ওপর ককটেল ছুড়ে দুলালকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তখন পুলিশ ‘নিজেদের রক্ষায়’ ১০ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছঁড়ে।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজিম উদ্দিন বলেন, ‘দুলাল কুখ্যাত ও পুলিশের খাতায় চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। ২০১৭ সালের ২৯ ডিসেম্বর ইয়াবাসহ পুলিশের হাতে আটক হয়েছিল। জামিনে মুক্ত পেয়ে আবার ব্যবসায় সংঘবদ্ধভাবে জড়িয়ে পড়ে।’

বৃহস্পতিবার সকালে মাদক ও পুলিশের ওপর বোমা হামলার ঘটনায় আলাদা মামলা নথিভুক্ত করে দুলালকে আদালতের মাধ্যামে পাবনা জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে