আপডেট : ১৬ মে, ২০১৮ ১৭:৫৫

আওয়ামী লীগ নেত্রীর খাবার খেয়ে শতাধিক হাসপাতালে

অনলাইন ডেস্ক
আওয়ামী লীগ নেত্রীর খাবার খেয়ে শতাধিক হাসপাতালে

ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলায় আওয়ামী লীগ নেত্রী ও সাবেক সংসদ সদস্য পারভিন তালুকদার মায়ার কর্মীসভায় দেওয়া নিম্নমানের খাবার খেয়ে পুলিশ, সাংবাদিক ও সরকারি কর্মকর্তাসহ শতাধিক ব্যক্তি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

তারা ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে বুধবার (১৬মে) দুপুর পর্যন্ত বিভিন্ন সরকারি হাসপাতাল ও বেসরকারি ক্লিনিকে ভর্তি হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

এ পর্যন্ত মহেশপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ৪৯, কোটচাঁদপুর স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ১৫, জীবননগর স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ১৩ ও চৌগাছা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ৪ জনের ভর্তির খবর পাওয়া গেছে। এছাড়া ২০ জন পুলিশ সদস্য,  পাঁচ সাংবাদিক ও তাদের পরিবারের সদস্য ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন।

মহেশপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আফসার আলী জানান, এ পর্যন্ত ফুড পয়জনিংয়ে মহেশপুরে ৪৯ জন ভর্তি হয়েছে। মঙ্গলবার মহেশপুর হাই স্কুলমাঠে দলীয় অনুষ্ঠানের খাবার খেয়ে তাদের এই অবস্থা বলে ভর্তিকৃত রোগীরা চিকিৎসকের কাছে জানান।

তবে আক্রান্তদের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে ডা. আফসার জানান। এদিকে চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রের চিকিৎসক ডা. আনিছুর রহমান জানান, তাদের হাসপাতালে মহেশপুরের পীরগাছা, পিপলবাড়িয়া ও গোকুলনগর এলাকার ১৩ জন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছে। তারা সবাই আওয়ামী লীগের কর্মী ও সমর্থক। দলীয় অনুষ্ঠানের খাবার খেয়ে তাদের এই অবস্থা বলে রোগীরা জানিয়েছেন।

ঝিনাইদহের সিভিল সার্জন ডা. রাশেদা সুলতানা জানান, মহেশপুরে ফুড পয়জনিংয়ে এ সব মানুষ ডায়রিয়ায় আক্রান্ত। মহেশপুর-কোটচাঁদপুর এলাকার সংসদ সদস্য নবী নেওয়াজ জানান, মঙ্গলবার বিকালে মহেশপুর হাই স্কুল মাঠে সাবেক সংসদ সদস্য পারভিন তালুকদার মায়ার কর্মীসভা ছিল। সেখানে প্রায় ২/৩ হাজার খাবারের প্যাকেট বিতরণ করা হয়। নিম্নমানের এ সব খাবার খেয়ে দলীয় নেতাকর্মী, পুলিশ, সংবাদকর্মী ও সরকারী কর্মকর্তারা ডারিয়ায় আক্রান্ত হন। আক্রান্তদের সংখ্যা দুই’শ ছাড়িয়ে যাবে বলে তিনি আশংকা করেন।

তিনি অভিযোগ করেন পারভিন তালুকদার মায়া বরিশালের বাকেরগঞ্জ থেকে এখানে এসে পরিবশে নষ্ট করছে। আগে তিনি রাজনৈতিক পরিবেশ নষ্ট করেছেন, আর এখন নিম্নমানের খাবার দিয়ে নেতাকর্মীদের স্বাস্থ্যগত সমস্যা সৃষ্টি করছেন।

এমপি নবী নেওয়াজের অভিযোগ মায়া তালুকদার আওয়ামী লীগ থেকে বিতাড়িত টাউট, বাটপার, কালো বাজারীদের দলে ভিড়িয়ে মহেশপুরকে অশান্ত করছে। বিষয়টি নিয়ে মহেশপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ নেত্রী ও সাবেক সংসদ সদস্য পারভিন তালুকদার মায়া সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে