আপডেট : ২১ নভেম্বর, ২০১৭ ১৮:১৩

‘আমাকে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে আ.লীগ নেতা’

অনলাইন ডেস্ক
‘আমাকে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে আ.লীগ নেতা’

লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলায় বিয়ের প্রলোভনে এক এসএসসি পরীক্ষার্থীকে দিনের পর দিন ধর্ষণ করেছেন নুরুজ্জামান মিয়া (৪৫) নামে স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ নেতা।  তিনি হাতীবান্ধা উপজেলার সিন্দুর্না ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক।

নির্যাতনের শিকার ওই কিশোরী বর্তমানে হাতীবান্ধা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় সোমবার রাতে ওই নেতার বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছেন কিশোরীর বাবা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার সিন্দুর্না ইউনিয়নের বাসিন্দা ও আওয়ামী লীগ নেতা নুরুজ্জামান এলাকায় প্রভাবশালী হিসেবে পরিচিত। ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রী নুরুজ্জামানের প্রতিবেশী। তাকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভনে একাধিকবার ধর্ষণ করেন নুরুজ্জামান। কিশোরী এবার এসএসসি পরীক্ষার্থী।

ধর্ষণের শিকার কিশোরী বলেন, ‘গত বছরের ২১ নভেম্বর নুরুজ্জামান আমাকে তার এক আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে নিয়ে যান। সেখানে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে আমাকে ধর্ষণ করা হয়। এরপর থেকে একাধিকবার আমাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। কিন্তু এখন বিয়ের জন্য চাপ দেয়ায় বিষয়টি অস্বীকার করছেন নুরুজ্জামান।

কিশোরীর বাবা বলেন, ‘নুরুজ্জামান স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা। তার কাছে আমরা অসহায়। এরপরও ন্যায় বিচার পাওয়ার আশায় হাতীবান্ধায় থানায় মামলা করেছি।’

এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত নুরুজ্জামানের মুঠোফোনে একাধিকবার কল করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

হাতীবান্ধা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামীম হাসান সরদার জানান, আসামি নুরুজ্জামানকে গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে। লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীর প্রয়োজনীয় শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে