আপডেট : ১৯ নভেম্বর, ২০১৭ ১৬:৪২

প্রেমের টানে ঘর ছেড়ে ধর্ষণের শিকার কিশোরী

অনলাইন ডেস্ক
প্রেমের টানে ঘর ছেড়ে ধর্ষণের শিকার কিশোরী

প্রেমের টানে ঘর ছেড়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছে সিলেটের ওসমানীনগরের এক কিশোরী। কিশোরীর বাবা গত শুক্রবার মামলা করার পর পুলিশ ধর্ষক অটোরিকশাচালক ছমির মিয়াকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে গ্রেফতার করেছে। ছমির দয়ামীর চক আতাউল্লা গ্রামের মৃত আখলু মিয়ার ছেলে।

পুলিশ ও মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, উপজেলার উছমানপুর ইউনিয়নের ব্রাহ্মণশাসন গ্রামের ১৭ বছরের এক কিশোরী ১৫ নভেম্বর প্রেমিকের আহ্বানে সাড়া দিয়ে বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়।

প্রেমিকের কথামতো উপজেলার সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের তাজপুর কদমতলায় এসে কিশোরী তার প্রেমিককে না পেয়ে হতাশ হয়ে পড়ে। এ সময় সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালক ছমির মিয়া তাকে বাড়ি নিয়ে যাওয়ার কথা বলে স্থানীয় চকবাজারের আলমগীরের গ্যারেজে নিয়ে গিয়ে চেতনানাশক ওষুধ সেবন করিয়ে তাকে ধর্ষণ করে।

পরদিন কিশোরীর পরিবারের লোকজন বিষয়টি জানতে পেরে চকবাজারের অটোরিকশা গ্যারেজ থেকে তাকে উদ্ধার করে। ওসমানীনগর পুলিশকে বিষয়টি জানালে তারা শুক্রবার রাতে ছমিরকে আটক করে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ওসমানীনগর থানার এসআই ফরিদ আহমদ বলেন, ছমিরকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে