আপডেট : ২১ মার্চ, ২০১৬ ২২:৩৭

মৌলভীবাজারে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ উদ্ধার, আটক ৪

বিডিটাইমস ডেস্ক
মৌলভীবাজারে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ উদ্ধার, আটক ৪

মৌলভীবাজারে শরীফা বেগম (২৩) নামে এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।এ ঘটনায় পুলিশ চারজনকে আটক করেছে।

সোমবার সকালে বড়লেখা উপজেলায় গাজীটেকা-নাজিরেরচক গ্রামের স্বামীর বাড়ী থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের আগস্ট মাসে বড়লেখা পৌরসভার গাজীটেকা-নাজিরেরচক গ্রামের শরীফার সঙ্গে ছাদিকুর রহমানের বিয়ে হয়। শরীফা তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। গতকাল রোববার দিবাগত রাত তিনটার দিকে শ্বশুরবাড়ির লোকজন মুঠোফোনে শরীফার স্বজনদের জানায়, পেটব্যথায় তাঁর মৃত্যু হয়েছে। স্বজনদের কাছে খবর পেয়ে আজ বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শরীফার লাশ উদ্ধার করে। এ সময় শরীফার শাশুড়ি মিনারা বেগম, ননদ হুমায়রা আক্তার, হানিফা আক্তার ও হাজেরা আক্তারকে পুলিশ আটক করে থানায় নিয়ে যায়।
শরীফার বাবা আবদুল মালিক অভিযোগ করেন, নানা তুচ্ছ কারণে শরীফার শ্বশুরবাড়ির লোকজন প্রায়ই তাঁর মেয়ের ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালাতেন। শ্বশুরবাড়ির লোকজন পরিকল্পিতভাবে শরীফাকে হত্যা করেছে। এ ব্যাপারে তিনি থানায় হত্যা মামলা করবেন।
বড়লেখা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আনোয়ার হোসেন বলেন, সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরির সময় নিহত শরীফার পিঠ ও ঘাড়ে একাধিক আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে। শ্বাসরোধ করে তাঁকে হত্যা করা হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের জন্য শরীফার লাশ মৌলভীবাজারের ২৫০ শয্যার হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান তিনি।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে  

উপরে