আপডেট : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১১:১০

কুমিল্লায় দুইভাই হত্যার ঘটনায় মামলা

বিডিটাইমস ডেস্ক
কুমিল্লায় দুইভাই হত্যার ঘটনায় মামলা

কুমিল্লায় ছোট দুইভাইকে হত্যার ঘটনায় মামলা হয়েছে। মামলার আসামি নিহতদের সৎভাই শফিউল আলম ছোটন পলাতক রয়েছেন।

রোববার কুমিল্লার সদর দক্ষিণ মডেল থানায় মা রেখা বেগম বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।

এর আগে শনিবার কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলায় ছোট দুই ভাইকে গলাটিপে হত্যা করেছে সৎভাই শফিউল ইসলাম ছোটন। একই দিন বিকাল পৌনে ৬টায় পুলিশ দু’ভাই মেহেদী হাসান জয় (৭) ও মেজবাউল হক মনির (৫) লাশ উদ্ধার করেছে।

নিহত জয় ও মনি সদর দক্ষিণ উপজেলার ঢুলিপাড়ার বাসিন্দা আবুল কালামের দ্বিতীয় স্ত্রীর সন্তান। তিনি একজন মুদি দোকানি। শফিউল ইসলাম ছোটন তার প্রথম স্ত্রীর সন্তান। তিনি ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটির ছাত্র। কালামের উভয় স্ত্রী ঢুলিপাড়ার একই বাড়িতে থাকেন। ছোটন ঢাকায় হোস্টেলে থাকেন। সম্প্রতি তিনি বাড়ি এসেছিলেন।

স্থানীয়রা জানান, কালামের দুই স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়াবিবাদ লেগেই থাকত। পারিবারিক কলহের জের ধরেই এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে। ধারণা করা হচ্ছে লাশ উদ্ধারের কিছু সময় আগে দুপুর ২টা থেকে ৩টার মধ্যে দুই সৎভাইকে শ্বাসরোধে হত্যা করে শফিউল পালিয়ে যায়।

দুই শিশুর বাবা আবুল কালাম বলেন, জয় ও মনিকে বাসায় রেখে আমি ও তাদের মা রেখা আক্তার বাইরে যাই। ফিরে এসে দেখি বাইরে থেকে দরজা লাগানো। দরজা খুলে দেখি আমার দুই সন্তান খাটে লাশ হয়ে পড়ে আছে। তাদের গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। সে (শফিউল) তাদের গলাটিপে হত্যা করেছে।

স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ বিকাল পৌনে ৬টার দিকে দু’ভাইয়ের লাশ উদ্ধার করেছে। পুলিশের ধারণা, সম্পত্তির লোভে মা রোকেয়া বেগমের প্ররোচনায় শফিউল দুই সৎ ভাইকে হত্যা করেছে।

কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মামুনুল হক বলেন,ধারণা করা হচ্ছে, গলায় রশি পেঁচিয়ে অথবা হাত দিয়ে শ্বাসরোধ করে তাদের হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনার পর থেকে ঘাতক শফিউল ইসলাম ছোটন পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

 

উপরে