আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ২২:৪৯

ছাত্রীর গালে শিক্ষকের চুমু, স্কুলে তালা দিয়েছেন অভিভাবকরা

বিডিটাইমস ডেস্ক
ছাত্রীর গালে শিক্ষকের চুমু, স্কুলে তালা দিয়েছেন অভিভাবকরা
৫ম শ্রেণির ছাত্রীকে চুমু দেয়ার ঘটনায় প্রধান শিক্ষকের বিচার দাবিতে গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার উদাখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তালা লাগিয়ে দিয়েছে গ্রামবাসী ও অভিভাবকরা। ২৭ ফেব্রুয়ারি শনিবার সকালে তারা অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক আয়নাল হককে গ্রেপ্তারের দাবিতে স্কুলে তালা লাগিয়ে বিক্ষোভ করে। 
এলাকাবাসী জানায়, গত বৃহস্পতিবার ক্লাসের মধ্যে সব শিক্ষার্থীর সামনে প্রধান শিক্ষক জাহিদুল ইসলাম ওই ছাত্রীর গালে চুমু দেন। পরে বিষয়টি নিয়ে জানাজানি ও কানাকানি শুরু হলে স্কুলের শিক্ষার্থীরা বৃহস্পতিবার স্কুল থেকে বাড়ি চলে যান। এ ঘটনায় এলাকার লোকজন ও ছাত্রীর অভিভাবক শিক্ষক জাহিদুল ইসলাম প্রতি বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। ওইদিন তারা স্কুলে গিয়ে দেখেন স্কুল বন্ধ করে শিক্ষকরা চলে গেছেন। এ সময় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে ওই এলাকায়। 
এলাকার বিক্ষুব্ধ লোকজন অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক আয়নাল হককে গ্রেপ্তার ও তার বিচার দাবিতে স্কুলে তালা লাগিয়ে দেন। তারা লম্পট শিক্ষককে গ্রেপ্তারের দাবিতে এলাকায় বিক্ষোভ করেন। খবর পেয়ে ফুলছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুলাহিল সাফি ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেন।
উপরে