আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৭:৫২

মানসিক ভারসাম্যহীন কিশোরী ফিরতে চায় মায়ের কাছে

বিডিটাইমস ডেস্ক
মানসিক ভারসাম্যহীন কিশোরী ফিরতে চায় মায়ের কাছে

নওগাঁ সদর হাসপাতালে গত ৫৩ দিন ধরে চিকিৎসা নেয়া মানসিক ভারসাম্যহীন এক কিশোরী কেঁদে কেঁদে মায়ের কাছে যেতে চাচ্ছে।কিন্তু নাম ঠিকানা কিছু বলতে না পারায় তা সম্ভব হয়ে উঠছে না বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে।

জানা গেছে, হাসপাতাল সূত্র জানায়, গত ৫ জানুয়ারি ওই কিশোরীকে অচেতন অবস্থায় হাসপাতালের জরুরি বিভাগে রেখে যান ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। এরপর থেকে সে হাসপাতালের মহিলা অর্থো ওয়ার্ডের ৮৯ নম্বর বেডে আছে। হাসপাতালে আসার পর পাঁচ দিন পর্যন্ত কিশোরী অচেতন ছিল। সবার প্রচেষ্টায় ২০ দিনের মধ্যে সে সুস্থ হয়ে ওঠে।এখন সে ওয়ার্ডের মধ্যে সে সারাক্ষণ ছোটাছুটি করে। সুস্থ হওয়ার এক মাসের বেশি সময় কাটলেও তার কোনো অভিভাবক পাওয়া যাচ্ছে না। পাওয়া যাচ্ছে না ঠিকানাও। তাই তাকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেওয়া যাচ্ছে না। মেয়েটিকে নিয়ে এখন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রয়েছেন বিপাকে।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, মেয়েটিকে সব সময় নজরে রাখতে হচ্ছে। তার মানসিক চিকিৎসা প্রয়োজন। তারা আরও কিছুদিন অপেক্ষা করবে। এরপরও কিশোরীর অভিভাবক পাওয়া না গেলে তাকে মানসিক চিকিৎসার জন্য পাবনায় পাঠানো হবে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে

 

উপরে