আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১২:৪৭

স্বামীর ছোড়া এসিডে ঝলসে গেলো স্ত্রী

আমিনুল ইসলাম, ব্রাক্ষণবাড়িয়া প্রতিনিধি
স্বামীর ছোড়া এসিডে ঝলসে গেলো স্ত্রী

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় স্বামীর ছোড়া এসিডে ঝলসে গেলো স্ত্রীর শরীরের এক তৃতীয়াংশ। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের কাজীপাড়া সৈয়দ বাড়ির মৃত সালাউদ্দিনের মেয়ে।

বুধবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে শহরের দক্ষিণ মোড়াইল এলাকার তানিয়ার ওপর এসিড নিক্ষেপ করে তার স্বামী শেখ নজরুল ইসলাম খান।  

এলাকার লোকজন তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িযা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। কর্তব্যরত ডাক্তার প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা বার্ণ ইউনিটে প্রেরণ করে। এ ঘটনায় নিলা বেগম ও তুষার রহমান নামে আরও দুজন আহত হয়েছে। পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্বামী নজরুলকে আটক করেছে।

আহত তানিয়া আক্তার জানায়, স্বামীর সাথে বিয়ের পর থেকেই বনিবনা হচ্ছিল না। সংসারে শান্তি ফিরিয়ে আনতে পারিবারিভাবে ৪/৫ দিন পূর্বে উভয় পরিবারের সদস্যদের সমঝোতা হয়। তবে কারা, কি কারণে এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা বুঝতে পারছি না। রাতে নামাজ পড়ার জন্য উযু করতে যাওয়ার সময় রান্না ঘরের জানালা দিয়ে কে বা কারা এসিড নিক্ষেপ করে।

সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগে চিকিৎসক এলিনা রহমান জানায়, তানিয়াকে রান্নাঘরের জানালা দিয়ে কেউ একজন এসিড ছুড়ে পালিয়ে যায়। পরে তার চিৎকারে তিনিসহ অন্য প্রতিবেশিরা এগিয়ে আসেন। এরপর দ্রুত তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।
 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগে কর্মরত চিকিৎসক ফায়েজুর রহমান জানান, কেমিক্যাল বার্ণের কারণে গৃহবধূর গলা, বাম হাতসহ মুখমন্ডলের ৩২ থেকে ৩৫ শতাংশ (এক তৃতীয়াংশ) ঝলসে গেছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাঈনুর রহমান জানান,খবর পেয়ে পুলিশের একটি টিম তাৎক্ষণিক মাঠে নেমে তার স্বামী নজরুলকে আটক করে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

উপরে