আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১১:২৫

সাতক্ষীরায় 'বন্দুকযুদ্ধে' গুলিবিদ্ধ ১

বিডিটাইমস ডেস্ক
সাতক্ষীরায় 'বন্দুকযুদ্ধে' গুলিবিদ্ধ ১

সাতক্ষীরার ভোমরায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে  সাদ্দাম হোসেন নামে এক অপহরণকারী গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। এসময় তার কাছ থেকে একটি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। এতে পুলিশের তিন সদস্যও আহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, গুলিবিদ্ধ সাদ্দাম হোসেন সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার জাফরপুর গ্রামের ঘের মালিক সেলিম সরদারকে অপহরণ করে। সাদ্দামকে সাতক্ষীরা হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

সাদ্দাম যশোরের শার্শা উপজেলার যাদবপুর কাজির বেড় গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে।

সাতক্ষীরা জেলা গোয়েন্দা পুলিশ পরিদর্শক ইনামুল হক জানান, দুদিন আগে ভোমরা থেকে ঘের মালিক সেলিম সরদার অপহৃত হবার পর যশোরের শার্শা থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় জড়িত সাদ্দাম হোসেনকে গ্রেফতার করে তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী বুধবার রাতে ভোমরার গাংনি ব্রিজের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে পৌঁছানো মাত্র সাদ্দাম গাড়ি থেকে হ্যান্ডকাফ পরা অবস্থায় লাফ দেয়। এসময় অপহরণকারী দলের অপর সদস্যরা পুলিশের ওপর ককটেল নিক্ষেপ করে ও গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। উভয়পক্ষে প্রায় ২০ মিনিট সংঘর্ষের এক পর্যায়ে সাদ্দাম হোসেনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়।

তিনি জানান, একই সময়ে অপহরণকারীদের হামলায় পুলিশের তিন সদস্য আহত হন। আহতরা হলেন- উপসহকারি পরিদর্শক (এএসআই) ইসমাইল হোসেন, কনস্টেবল জাকির হোসেন ও কনস্টেবল রফিকুল ইসলাম। তাদের সাতক্ষীরা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ইনামুল হক আরও জানান ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শ্যুটার গান, একটি পাইপগান ও দুই রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

এই অভিযানে অপহরণ মামলার তদন্তকারী অফিসার উপপরিদর্শক ( এসআই) আবু জার গিফারি এ অভিযানের নেতৃত্ব দেন বলে জানান তিনি।

সাতক্ষীরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মীর মোদাচ্ছের আলি জানান, সাদ্দাম হোসেন একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। তার কাছে বেআইনি অস্ত্র রয়েছে। তিনি একবার র‌্যাবের হাতে ধরা পড়েছিলেন। এবার তাকে নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারে গেলে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

উপরে