আপডেট : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৯:১৮

কোরোসিনের খনি পাওয়া গেছে পার্বতীপুরে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
কোরোসিনের খনি পাওয়া গেছে পার্বতীপুরে

বিপুল সম্ভাবনার দ্বার উম্মোচন করে পার্বতীপুর কয়লা খনির পার্শে উপজেলার হাবড়া ইউনিয়নের ভবানীপুর শেরপুর বনের ডাঙ্গা গ্রামে একটি কেরাসিন তৈলের কূপের সন্ধান মিলেছে।

শনিবার সকালে বাড়ির মালিক খাতিজার রহমান সাবেক বিডিআর এর বাড়িতে সাবমারসিবল পাম্প বোরিং এর সময় ৬০ ফুট গভীর থেকে কেরোসিন তৈল উথলে বেরিয়ে আসা শুরু করে। মুহুর্তে চতুর্দিকে হৈ হুল্লোড় পড়ে যায়।

স্থানীয় প্রশাসন খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে বোতলে করে তৈল সংগ্রহ করেন। এবং বলেন এখানে প্রচুর পরিমাণ কেরোসিন তৈল সম্ভবনার বিরাজমান। বিশেষজ্ঞদের দ্বারা পরীক্ষা নিরীক্ষা জন্য সংগৃহিত তেলের নমুনা পরীক্ষা চলছে।

খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার তরফদার মাহমুদুর রহমান, পৌর মেয়র আলহাজ এ জেড এম মেনহাজুল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান রেজাউল করিম, প্রাক্তন শিক্ষক ও বীরমুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল হোসেন স্থানীয় সাংবাদিক এম এ জলিল সরকারসহ প্রিন্ট মিডিয়ার কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তরফদার মাহমুদুর রহমান জেলা প্রশাসকসহ উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে বলে তিনি জানান।

সুদীর্ঘকাল থেকে ভূ-তত্ত্ব জরিপ বিভাগের বিশেষজ্ঞগণ মতামত দিয়ে আসছিলেন বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি, মধ্যাপাড়া পাথর খনি, দিঘিপাড়া ফুলবাড়ী কয়লা ক্ষেত্র এই অঞ্চলের মাঠির নিচে প্রচুর পরিমাণ খনিজ পদার্থ রয়েছে। এগুলো রক্ষনাবেক্ষণ ও উত্তোলন শুরু হলেই উত্তরের উপজেলার জীবনযাত্রার মান বাড়বে।

এ ব্যাপারে আজ শনিবার দুপুরে মুঠো ফোনে বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির এমডি আমিনুজ্জামান বলেন- এই বিষয়টি আমাদের নয় বিষয়টি পেট্টোবাংলার অধীনে। তারাই অনুসন্ধান করে বিষয়টি দেখবে।

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

উপরে