আপডেট : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৭:১৯

শ্বাশুড়ির ঋণের টাকা না পেয়ে জামাইকে অপহরণ, গ্রেপ্তার ৫

বিডিটাইমস ডেস্ক
শ্বাশুড়ির ঋণের টাকা না পেয়ে জামাইকে অপহরণ, গ্রেপ্তার ৫

নগরীর বায়েজিদ থানার মাইজপাড়া এলাকা থেকে  বুধবার রাত পৌণে ১২টার দিকে শ্বাশুড়ি ঋণের টাকা পরিশোধ করতে না পারায়  মেয়ের জামাইকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার সময় পাঁচ অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করেছে বায়েজিদ থানা পুলিশ।

এসময় জামাতা আব্দুল মজিদকে উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মো. মোসলেম উদ্দিন (৫৪), হেলাল উদ্দিন (৩৫), নুরুল আবছর (২২), মো. বাচ্চু (৩০) ও মো. রাসেল (২২)।

বায়েজিদ থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন বলেন, “গ্রেপ্তার মোসলেম উদ্দিন নগরীর বাকলিয়া এলাকায় ‘সোনালী সোশ্যাল ডেভলপমেন্ট কোম্পানী’ নামে একটি প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করেন। ২০১২ সালে আবদুল মজিদের শ্বাশুড়ি গুলবাহার (৫০) ওই ডেভলপমেন্ট কোম্পানী থেকে দুই দফায় ১৯ হাজার ৫’শ টাকা ঋণ নেন। কিন্তু সময়মত ওই টাকা পরিশোধ করতে পারেননি তিনি। পরে তারা বাকলিয়া থেকে বায়েজিদের মাইজপাড়া এলাকায় ভাড়া বাসায় চলে আসেন। বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে বকেয়া টাকার আদায়ের জন্য মোসলেম উদ্দিন তার দলবল নিয়ে মাইজপাড়ায় এসে গুলবাহারের বাসায় যান। এসময় টাকা না পেয়ে মেয়ের জামাই আবদুল মজিদকে সিএনজি অটোরিকশায় করে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে তারা। অক্সিজেন এলাকায় তার চিৎকার শুনে অটোরিকশা থামিয়ে আবদুল মজিদকে উদ্ধার করে পুলিশ। এসময় অপহরণের দায়ে পাঁচজনকে আটক করা হয়।’

এ ঘটনায় আব্দুল মজিদ বাদি হয়ে বায়েজিদ থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেছেন বলে জানান তিনি।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

উপরে