আপডেট : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৫:৫১

যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যা

বিডিটাইমস ডেস্ক
যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যা

লক্ষীপুরের কমলনগরে সাজু বেগম (২৪) নামের এক নারীর অর্ধঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগে স্বামী আকতার হোসেনকে (৩০) আটক করা হয়।

শনিবার সকালে উপজেলার চর লরেন্স ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের শাহ আলমের বাড়ি থেকে (স্ত্রী বাবার বাড়ি) সাজুর লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত সাজু বেগম চর লরেন্স ইউনিয়নের শাহ আলমের মেয়ে। আটক স্বামী আকতর হোসেন হাজীগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা বেচু বেপারির ছেলে। সে ঘরজামাই হিসাবে শ্বশুর বাড়িতে থাকতো।

নিহত সাজু বেগমের বাবা শাহ আলম জানান, দেড় বছর আগে আক্তার হোসেন ২০ হাজার টাকা যৌতুক দাবি করে তার মেয়েকে বিয়ে করে। যৌতুকের ১২ হাজার টাকা দিতে পারলেও ৮ হাজার টাকা দেয়া সম্ভব হয়নি। স্বামী আকতার গতকয়েক দিন থেকে যৌতুকের বাকি টাকার জন্য চাপ দেয়। এছাড়াও অকারণে তার মেয়েকে সন্দেহ করে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে প্রায় কথা কাটাকাটি হতো।

শুক্রবার রাতে মেয়ে স্বামীর সঙ্গে একসঙ্গে ঘুমায়। গভীর রাতে স্বামী তার মেয়েকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পরে ওড়না দিয়ে লাশ ঘরের আড়ার সঙ্গে অর্ধঝুলন্ত করে রেখে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচারের চেষ্টা চালায়। এসময় এলাকার লোকজন তাকে ধরে বেধে রাখে।

কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কবির আহাম্মদ জানান, প্রাথমিক তদন্তে সাজু বেগমকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ বিষয়ে আটক স্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। মৃতদেহ উদ্ধার করে লক্ষীপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের মাধ্যমে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে, একই সময় ওই এলাকা থেকে আবদুল গণি (৩৮) নামে এক যুবকের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার মর্গে পাঠায় পুলিশ। এ বিষয়টিও নিশ্চিত করেন ওসি কবির আহম্মেদ। 

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

উপরে