আপডেট : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৯:৪৯

মাগুরায় দুটি পৃথক সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ২০

বিডিটাইমস ডেস্ক
মাগুরায় দুটি পৃথক সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ২০

মাগুরার মোহাম্মদপুর উপজেলার নহাটা ও চরবড়রিয়ায় পৃথক দুটি সংঘর্ষে পুলিশ অন্তত ২০ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ২০ টিরও বেশি বাড়ী ও দোকান ভাংচুর ও লুটপাত হয়েছে।

সোমবার রাতে এ দুই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নহাটা গ্রামবাসী সূত্রে জানা গেছে, সোমবার রাত ৯টার দিকে নহাটা বাজারের একটি চায়ের দোকানে নহাটা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা মোস্তফা কামাল লিটন ও নহাটা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আলী মিয়ার সমর্থকরা আড্ডা দিচ্ছিলেন।

আড্ডায় আসন্ন ইউপি নির্বাচনে নহাটা ইউনিয়নের দলীয় মনোনয়ন নিয়ে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে উভয়  পক্ষে সংঘর্ষ বাঁধে। সংঘর্ষে পুলিশের নহাটা ক্যাম্পের এএসআই জামাল হোসেনসহ পাঁচজন আহত হন।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে নহাটা পুলিশ ১৫ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এসময় ১০ জনের বাড়ীঘরে ভাংচুর ও লুটপাতের ঘটনা ঘটে

এ ঘটনায় নহাটা পুলিশ ক্যাম্পের এএসআই জামাল হোসেন বাদী হয়ে ২১ জনের নামসহ অজ্ঞাত ৯০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। পরে একজনকে আটক করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

এদিকে,  একই দিন সন্ধ্যায় পার্শ্ববর্তী চরবড়রিয়া গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে কাঞ্চন মোল্লা ও পান্নু শিকদার নামে দুই গ্রাম্য মাতব্বরের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

এতে সজিব (২২) নামে এক যুবক গুলিবিদ্ধ এবং মোহম্মদপুর থানার এসআই নাসিরসহ ১৫ জন আহত হন। তাদের মধ্যে সজিবকে মাগুরা সদর হাসপাতাল ও আহাদ (২৫), মুরাদ (৪০) ও ইমদাদ (২৫) নামে তিনজনকে মোহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় আহত এসআই নাসির বাদী হয়ে ২২ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ২২২ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন বলে জানা গেছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে

  

উপরে