আপডেট : ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৫:১০

বরিশাল বিএম কলেজে ছাত্রলীগের মিছিলে পুলিশের লাঠিচাজ

বরিশাল প্রতিনিধি
বরিশাল বিএম কলেজে ছাত্রলীগের মিছিলে পুলিশের লাঠিচাজ

বরিশাল সরকারি বিএম কলেজে ছাত্রলীগের মিছিলে লাঠিচার্জ করেছে পুলিশ। রবিবার বেলা ১২টার দিকে কলেজ ক্যাম্পাসে এঘটনা ঘটে। এতে কলেজ ছাত্রলীগের ৩কর্মী আহত হয়েছে। এরা হলেন ইংরেজী বিভাগের ৩ বর্ষের ছাত্র ওবায়দুর রহমান বাদল, সমাজকল্যাণ বিভগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র শহিদুল ইসলাম পলাশ ও অর্থনীতি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র দেওয়ান মো. সোহেল। তাদেরকে স্থানীয় সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা হয়নি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায় ক্যাম্পাসে সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যকর কর্মকান্ড বন্ধ করার প্রতিবাদে অস্থায়ী কর্ম পরিষদের (বাকসু) সাহিত্য সম্পাদক নুর আল আহাদ সাঈদীর নেতৃত্বে ছাত্রলীগের কিছু কর্মী ক্যাম্পাসে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে বেপরোয়া লাঠিচার্জ করে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

 বরিশাল মেট্রোপলিটন এলাকার কোতয়ালি মডেল থানার ওসি মো. শাখায়াত হোসেন জানান, কলেজ কতৃপক্ষের অনুমতি ছাড়াই ক্যাম্পাসে মিছিল বের করেছে ছাত্রলীগের একাংশ। নিষেধাজ্ঞা ভেঙে মিছিল বের করায় লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়া হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এছাড়া যে কোন ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

কলেজর অধ্যক্ষ অধ্যাপক স ম ইমানুল হাকিম বলেন, ছাত্রলীগ ক্যাম্পাসে যে মিছিল বের করেছে তাতে কলেজ কতৃপক্ষের কোন অনুমতি ছিলো না। পুলিশকে ব্যাবস্থা নিতে বলা হয়েছে তারা সে অনুযায়ী ব্যাবস্থা নিয়েছে।

 উল্লেখ্য, গত ২ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার রাতে অস্থায়ী কর্মপরিষদের ক্রীড়া সম্পাদক ফয়সাল আহম্মেদ মুন্নাকে কুপিয়ে জখম করে প্রতিপক্ষের লোকজন। ওই ঘটনায় ভিপি মঈন তুষার অনুসারী সাহিত্য সম্পাদক নুর আল আহাদ সাঈদীসহ ৮জনকে অভিযুক্ত করে একটি মামলা দায়ের করা হয়। উদ্ভুদ্ধ পরিস্থিতিতে কলেজ প্রশাসন ৩ ফেব্রুয়ারি জরুরী সভা ডেকে কলেজে সকল ধরনের মিছিল-সমাবেশ নিষিদ্ধ ঘোষনা করে। কিন্তু এরপরও মুন্নার ওপর হামলা মামলার আসামী সাইদী মিছিল বের করলে পুলিশ তাতে লাঠিচার্য করে।

 

বিডিটাইমস৩৬৫.কম/বরিশাল প্রতিনিধি

উপরে