আপডেট : ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৫ ১২:৪৯

চট্টগ্রামে জঙ্গি আস্তানায় স্নাইপার রাইফেল, সেনা পোষাক

অনলাইন ডেস্ক
চট্টগ্রামে জঙ্গি আস্তানায় স্নাইপার রাইফেল, সেনা পোষাক

রাজধানীর মিরপুরের পর এবার চট্টগ্রামে এক বাসায় নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জেএমবির আস্তানার সন্ধান পেয়েছে পুলিশ। সেখানে অভিযান চালিয়ে একটি স্নাইপার রাইফেল, গুলি ও বিস্ফোরকসহ সেনাবাহিনীর পোশাকও উদ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, গত ৫ অক্টোবর খোয়াজনগর এলাকায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার জেএমবি সদস্যদের বিষয়ে তদন্ত করতে গিয়ে চট্টগ্রামের বিভিন্ন স্থান থেকে নাহিম, রাসেল ও ফয়সাল নামে ২৫ থেকে ২৭ বছর বয়সী তিন যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়।

তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে হাটহাজারি থানার আমান বাজার এলাকায় হাজী ইছহাক ম্যানসন নামের ওই দুই তলা বাড়ির নিচতলায় শনিবার রাত দেড়টা থেকে রোববার ভোর ৬টা পর্যন্ত অভিযান চালানো হয়।

অভিযানে একটি এমকে-১১ স্নাইপার রাইফেল, ২০০টি গুলি, দুটি ম্যাগজিন, দুই কেজি জেল এক্সপ্লোসিভ, ১০টি ডেটোনেটর, সেনাবাহিনীর ১২ সেট পোশাক, বোমা তৈরির বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

উদ্ধারকৃত এমকে-১১ স্নাইপার রাইফেলটি যুক্তরাষ্ট্রে নির্মিত একটি আধুনিক স্নাইপার রাইফেল। এর আগে বাংলাদেশে এধরণের স্নাইপার রাইফেল উদ্ধার হয়েছে কিনা এবিষয়ে এখনি নিশ্চিতভাবে পুলিশ কিছু বলতে পারছে না।

নগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (উত্তর-দক্ষিণ) বাবুল আক্তার জানান, ধারণা করা হচ্ছে নাফিস নামে ওই বাসা ভাড়া নিয়েছিল জেএমবির আঞ্চলিক কমান্ডার ফারদিন। আগে গ্রেপ্তার হওয়া কয়েকজনের কাছে ওই আস্তানার কথা জানা গেলেও ওই বাসার ঠিকানা আগে পুলিশ জানতে পারেনি।  

বাড়ির মালিক হাজী ইছহাক জানান, প্রায় মাস খানেক বাসাটি খালি থাকার পর সপ্তাহ দুই আগে ‘নাফিজ’ এসে ভাড়া পরিশোধ করেন। ‘নাফিজ’ এমনিতে আশপাশের কারও সঙ্গে কথা বলতেন না। তার বাসায়ও বাইরের লোক তেমন একটা আসত না।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার ঢাকার মিরপুরে একটি কথিত জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ বিপুল পরিমাণ বোমা এবং বোমা তৈরির সরঞ্জাম এবং সুইসাইড ভেস্ট উদ্ধার করে। পরবর্তীতে পুলিশ মিরপুরের ঐ বাড়িটিকে ‘বোমা তৈরির কারখানা' বলে জানায়।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে/একে

উপরে