আপডেট : ১৮ জানুয়ারী, ২০১৮ ১২:৪৩

ফেসবুকে লাইক দেওয়ায় ছাত্রলীগের হাতে রক্তাক্ত ঢাবি শিক্ষার্থী

অনলাইন ডেস্ক
ফেসবুকে লাইক দেওয়ায় ছাত্রলীগের হাতে রক্তাক্ত ঢাবি শিক্ষার্থী

জামায়াত নেতা সেলিম উদ্দিনকে নিয়ে ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টে লাইক দেওয়ার অভিযোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক শিক্ষার্থীকে রাতভর নির্যাতন করেছে বিজয় একাত্তর হল শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের শিকার মোহাম্মদ মুরাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি সাহিত্য বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী। তাঁকে হলের নিজ কক্ষ থেকে উঠিয়ে নেওয়া হয়। ছয় ঘণ্টা পর রাত সাড়ে ৪টায় রক্তাক্ত অবস্থায় বিজয় একাত্তর হলের নিজ কক্ষ থেকে তাঁকে নীলক্ষেত পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা এসে নিয়ে যান।

আহত শিক্ষার্থী মুরাদ বলেন, ভুল করে লাইক পড়ে গেছে, তিনি কোনো ধরনের রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত নন। তাঁর শরীরে মোটা রডের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

হল সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা শিবির সন্দেহে মুরাদকে হলের ৯০০৮ নম্বর কক্ষ থেকে তুলে নিয়ে যায়। পরে হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ফকির রাসেলের ৩০০২ নম্বর রুমে আটক রেখে তাঁর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট চেক করা হয়। ফেসবুক অ্যাকাউন্টের অ্যাক্টিভিটি লগ চেক করলে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে জামায়াতের সম্ভাব্য মেয়র পদপ্রার্থী সেলিম উদ্দিনকে নিয়ে দেওয়া পোস্টে মুরাদের লাইক পাওয়া যায়।

নীলক্ষেত পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) আসাদ বলেন, তাঁকে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে বুধবার সন্ধ্যায় ওই শিক্ষার্থীকে তাঁর পরিবারের সদস্যরা এসে নিয়ে যান।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রুমা

উপরে