আপডেট : ২৮ জানুয়ারী, ২০১৬ ২০:৪৯
ডিটিজি-২০১৬

আধুনিকতা ও উৎকর্ষতা নিয়ে সোনালী ট্রেডার্সের পণ্য

রেজা করিম
আধুনিকতা ও উৎকর্ষতা নিয়ে সোনালী ট্রেডার্সের পণ্য

শুরু হয়েছে ১৩ তম ঢাকা আন্তর্জাতিক টেক্সটাইল এন্ড গার্মেন্ট মেশিনারি প্রদর্শনী। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বৃহস্পতিবার শুরু হওয়া এ প্রদর্শনীতে দেশ বিদেশের ১১০০ প্রখ্যাত টেক্সাইল মেশিনারিজ প্রস্তুতকারক কোম্পানি প্রায় ১২০০ বুথে প্রদর্শন করছেন তাদের পণ্য। প্রদর্শন করছেন পোষাক খাতে ব্যবহৃত নামী-দামী ব্রান্ডের মেশিন ও যন্ত্রাংশ।

বিদেশী কোম্পানিগুলোর সঙ্গে সমানভাবে পাল্লা দিয়ে যাচ্ছে দেশিও কোম্পানিগুলো। তারাও প্রদর্শন করছেন দেশি-বিদেশী প্রযুক্তির সর্বশেষ আসা মেশিনগুলো। সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে মেলায় দর্শনার্থীর সংখ্যা যেমন বাড়ছে, তেমনি বাড়ছে দেশীয় প্রতিষ্ঠানগুলোতে মানুষের ভিড়।

এমনি দেশিও একটি প্রতিষ্ঠান সোনালী ট্রেডার্স।যার অবস্থান ১৮ নম্বর স্টলের ১৮৩০ নম্বর বুথে।ঘুরে দেখা যায় সেখানেও দেশি-বিদেশী দর্শনার্থীদের ভিড় লেগেই আছে। তারা প্রদর্শন করছেন সর্বশেষ প্রযুক্তির টেকসই সব পণ্য। এগুলোর মধ্যে রয়েছে কার্বন স্টিল সিমলেস পাইপ ও পাইপ ফিটিংস, স্টেইনলেস স্টিল পাইপ ও পাইপফিটিংস, বয়লার টিউব ও ফিটিংস, পিভিসি, ইউপিভিসি ও সিভিসি পাইপ এবং পাইপ ফিটিংস, বল ভাল্ব, বাটারফ্লাই ভাল্ব, স্টিম ভাল্ব, গেইট ভাল্ব, গ্লোব ভাল্ব, ওয়াই-স্ট্রেইনার, স্টিম ট্রাম্প, ফ্লাংগেস ও ফ্লেক্সিবল জয়েন্টসহ প্রভৃতি সব পণ্য।

তাদের এসব পণ্য মানসম্পন্ন ও অন্যান্য যেকোন কোম্পানির থেকে তুলনামুলক সস্তা বলে জানান সোনালী ট্রেডাসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ শাহজাহান কবির।

তিনি জানান, স্বাধীনতা যুদ্ধের আগে দেশের প্রথম বাঙালী ব্যবসায়ী হিসাবে আমরাই বিভিন্ন স্টিল জাতীয় ও মেশিনারিজ পণ্যের ব্যবসা শুরু করি।সেই শুরু আজ অবধি টিকে আছি।শুধু টিকে আছি না ভালভাবেই ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছি। এসময় পর্যন্ত ব্যবসার পরিধি যেমন বেড়েছে। সেই সাথে পেয়েছি মানুষের নিখাদ ভালবাসা।

শাহজাহান কবির জানান, সব ধরনের ব্যবসায় উত্থান-পতন আছে।আমাদের শুরুটা খুব ভাল গেছে তা নয়।শুরু থেকে এ পর্যন্ত অনেক যুদ্ধ করতে হয়েছে।কিন্তু কখনো কোয়ালিটির আর নীতির সঙ্গে আপস করিনি।একারণে এখনো টিকে আছি মুক্তবাজার অর্থনীতির এ বিশ্বে।

দীর্ঘ ব্যবসায়ী জীবনের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে তিনি জানান, কোয়ালিটি আর সততা থাকলে যত ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীই হোক না যেকোন অবস্থান থেকে তারা সফলতার মুখ দেখবে।  

বিক্রিত পণ্যগুলোর মধ্যে কোন পণ্যটির চাহিদা সবচেয়ে বেশি এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, অনেক পণ্যই আছে যেগুলোর চাহিদা সবসময় থাকে। তবে জি আই ফিটিংস ও ব্রয়লার টিউবের চাহিদা সবচাইতে বেশি।

এর কারণ হিসাবে তিনি জানান, এই দুইটি পণ্য দেশে তৈরি হয়না।সর্বোচ্চ মান সম্পন্ন ও তুলনামুলক কম দামে আমরা এই পণ্য দুইটি বিক্রি করে থাকি।এ কারণে এই দুইটি পণ্য সবচাইতে বেশি বিক্রি হয়। 

স্টলে ৮০০-৯০০ ধরণের মেশিনারিজ ও যন্ত্রাংশ প্রদর্শন করছেন তারা।এর সবগুলো মেশিনারিজই সর্বশেষ প্রযুক্তির ও কোয়ালিটি সম্পন্ন।দামও তুলনামুলকভাবে সস্তা বলে জানান সোনালী ট্রেডার্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহজাহান কবির।

বৃহস্পতিবার শুরু হওয়া এ মেশিনারিজ প্রদর্শনী চলবে ৩১ জানুয়ারি শনিবার পর্যন্ত।প্রদর্শনীতে ৩৩টিরও বেশি দেশের নামী-দামী ব্র্যান্ডের কোম্পানি অংশগ্রহণ করছে।    

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে      

 

 

উপরে