আপডেট : ১ জানুয়ারী, ২০১৬ ২০:৫৯

বাণিজ্য মেলা শুরু

বিডিটাইমস ডেস্ক
বাণিজ্য মেলা শুরু

নতুন বছরের প্রথম দিনে শুরু হয়েছে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা। বিশ্বের ২১টি দেশের অংশগ্রহণে এবারের মেলা জমজমাট হবে আশা করা হচ্ছে।

শুক্রবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক  সম্মেলন কেন্দ্রে এ মেলার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দেশের ব্যবসায়ীদের পণ্য বহুমুখীকরণের আহবান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বিশ্বে নতুন নতুন বাজার খুঁজতে হবে। কোন দেশে কোন পণ্যের চাহিদা আছে তা বিশ্লেষণ করতে হবে। সে অনুযায়ী রফতানিযোগ্য পণ্য উৎপাদনে দৃষ্টি দিতে হবে।

বাণিজ্য মেলার গুরুত্ব দিন দিন বেড়েই চলেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, “এ মেলা নিয়ে অন্যদের আগ্রহও সৃষ্টি হয়েছে। বিদেশিদের অংশগ্রহণের ফলে অভিজ্ঞতা বিনিময় করা যায়। বাংলাদেশি পণ্য বাইরে প্রচুর রফতানি করা হচ্ছে। এতে নতুন পণ্য রফতানির সম্ভাবনাও বাড়ছে”।

“বিষয়টি মাথায় রেখে ব্যবসায়ীদের কাজ করতে হবে। শুধু একটি পণ্যকে ধরেই নয়, যেসব পণ্য রফতানি করা যায় তা নিয়ে ভাবতে হবে। কোন দেশে কোন পণ্যের চাহিদা আছে তা বিশ্লেষণ করতে হবে ব্যবসায়ীদের। কোন রফতানিযোগ্য পণ্য উৎপাদন করা যায় সে দিকে দৃষ্টি দিতে হবে”।

মাসব্যাপী এ মেলায় প্রাপ্তবয়স্কদের ৩০ টাকা  এবং অপ্রাপ্তবয়স্কদের ২০ টাকা টিকেট মূল্য নির্ধারণ করা হয়। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য মেলা উন্মুক্ত করা হয়।

এবারের মেলায় নতুন দেশ হিসেবে অংশ নিচ্ছে মরিশাস, ঘানা, জাপান, নেপাল, হংকং, মরক্কো ও ভুটান। এছাড়াও থাকছে ভারত, পাকিস্তান, চীন, মালয়েশিয়া, ইরান, থাইল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র, তুরস্ক, সিঙ্গাপুর, অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাজ্য, দক্ষিণ কোরিয়া, জার্মানি ও আরব আমিরাত।

আগারগাঁওয়ে ৩১ দশমিক ৫৩ একর আয়তনের মাঠে এবারের মেলায় ছোট বড় মিলিয়ে মোট ৫৫৩টি স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে বিদেশি প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ৫৬টি ছোট-বড় স্টল ও প্যাভিলিয়ন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই‘র সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদসহ দেশের শীর্ষ ব্যবসায়ী, বেসামরিক-সামরিক কর্মকর্তা ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

 

উপরে