আপডেট : ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১২:৩৪

‘পদ্মাবতী’ বিতর্কে মুখ খুললেন আমির

অনলাইন ডেস্ক
‘পদ্মাবতী’ বিতর্কে মুখ খুললেন আমির

বলিউডের ইতিহাসে হয়ত এমন ঘটনা নেই। একটি ছবিকে কেন্দ্র করে গোটা দেশে বিতর্ক তৈরি হওয়া এমনকী সেই ছবির মুক্তি পর্যন্ত ঠেকিয়ে দেওয়ার ঘটনা হয়ত এবারই প্রথম। হ্যাঁ, বলছি সঞ্জয়লীলা বানসালি পরিচালিত ‘পদ্মাবতী’ ছবির কথা।

ইতিহাস বিকৃতির অভিযোগে এই ছবির বিরুদ্ধে কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলে রাজস্থানের বেশ কিছু সংগঠন ও পরিবার। এমনকী ‘পদ্মাবতীর’র বিরোধিতা করে এক ব্যক্তি আত্মহত্যাও করেছেন বলে শোনা যায়। এতো সব বিতর্কের রোষানলে পড়ে ‘পদ্মাবতী’র দ্বিতীয় ট্রেলার প্রকাশের সিদ্ধান্ত নেন নির্মাতা-প্রযোজক। তাছাড়া পুনরায় ছবিটিকে সেন্সরে পাঠানো হচ্ছে বলেও ভারতীয় গণমাধ্যমের দাবি।

‘পদ্মাবতী’ নিয়ে এরই মধ্যে বলিউডের অনেকেই কথা বলেছেন। দুঃখ প্রকাশ করেছেন একটি স্বাধীন পেশায় এমন পথ আগলে দাঁড়ানোর বিষয়ে। এবার ‘পদ্মাবতী’ বিতর্কে মুখ খুলেছেন বলিউডের মিস্টার পারফেকশনিস্ট আমির খান।

সরাসরি এই ছবি নিয়ে তিনি কিছু বলতে চাননি। তবে তার মতে, প্রতিবাদের অধিকার সবারই রয়েছে। কিন্তু হিংসা কোনও উপায় হতে পারে না। সঞ্জয়লীলা বানশালি ও দীপিকা পাড়ুকোনকে হুমকির ঘটনা খুবই দুর্ভাগ্যজনক।

আমির আরও বলেন, যেখানে গণতন্ত্র রয়েছে এবং আইনের শাসন রয়েছে এমন একটি দেশে হিংসার ভয় দেখিয়ে কাউকে হুমকি দেওয়াটা একেবারেই উচিত নয়। এ ধরনের হুমকি শুধু সিনেমা জগতের লোকজনের ক্ষেত্রেই সীমাবদ্ধ নয়। যে কেউ এ ধরনের হুমকির মুখে পড়তে পারেন। কিন্তু দেশে আইনের শাসন রয়েছে। কেউ আইনের উর্ধে নয়। কারোরই হিংসার পথ বেছে নেওয়া ঠিক নয়।

উল্লেখ্য, ‘পদ্মাবতী’ ছবির মূল তিন চরিত্রে অভিনয় করেছেন দীপিকা পাড়ুকোন, রণবীর সিং ও শহিদ কাপুর।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রুমা

উপরে