আপডেট : ২৪ নভেম্বর, ২০১৭ ১৫:৪০

‘পদ্মাবতীর প্রতিবাদে’ ২৩ বছর বয়সী যুবকের আত্মহত্যা!

অনলাইন ডেস্ক
‘পদ্মাবতীর প্রতিবাদে’ ২৩ বছর বয়সী যুবকের আত্মহত্যা!

সঞ্জয় লীলা বনশালীর নতুন সিনেমা ‘পদ্মাবতী’র প্রতিবাদে এতদিন চলেছে ভাংচুর, পোড়ানো হয়েছে নির্মাতা ও কলাকুশলীদের কুশপুত্তলিকা। এবারে জয়পুরের ঘটলো এক অভিনব কাণ্ড! সেখানকার বিখ্যাত নহরগড় দুর্গে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া গেছে এক ব্যক্তির দেহ। পাশে লেখা ‘পদ্মাবতীর প্রতিবাদে’!

শুক্রবার নহরগড়ের দেয়াল থেকে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় ঝুলতে দেখা গেছে চেতন কুমার নামের ওই ব্যক্তির মৃতদেহ। পাশের দেয়ালের পাথরে চারকোলে লেখা ছিলো ‘পদ্মাবতী, আমরা কেবল কুশপুত্তলিকা ঝুলাই না’। আরও লেখা ছিলো, ‘পদ্মাবতীর বিরুদ্ধে’। 

জয়পুর পুলিশের তদন্ত দল এরইমধ্যে পৌঁছে গেছে ওই এলাকায়। ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডেকে পুলিশ বলছে, ২৩ বছর বয়সী চেতনের মৃত্যু আত্মহত্যা না খুন- তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহের অবকাশ রয়েছে। কারণ যে স্থানে ঝুলতে দেখা গেছে মৃতদেহটি, সেখান থেকে কাউকে ঝুলাতে হলে কয়েকজন মানুষের দরকার।

এদিকে ‘পদ্মাবতী’র মূল বিরোধী পক্ষ, শ্রী রাজপুত করনি সেনার তরফ থেকে এই ঘটনার দায়ভার অস্বীকার করা হয়েছে। 

এদিকে দেশজুড়ে গোড়া হিন্দুত্ববাদীদের আন্দোলনের মুখে ‘পদ্মাবতী’র মুক্তি পিছিয়ে দিয়েছে প্রযোজকেরা। এরপর মধ্য প্রদেশ এবং গুজরাটে নিষিদ্ধ হয়েছে সিনেমাটির মুক্তি। সূত্র : ইন্ডিয়া টুডে

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

উপরে