আপডেট : ১৮ মার্চ, ২০১৬ ১৫:৩৪

মায়ের কারণে সুস্থ-স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পেরেছেন হানি সিং

বিনোদন ডেস্ক
মায়ের কারণে সুস্থ-স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পেরেছেন হানি সিং

বলিউডের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী হৃদেশ সিং। যাঁকে হানি সিং নামে চেনেন শ্রোতারা। অনেকে আবার ভালোবেসে তাঁকে ডাকেন ‘ইয়ো ইয়ো হানি সিং’ বলেও। সেই হানি সিংয়ের অতীত ইতিহাস জানেন কি? সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমের কাছে নিজের জীবনের অন্ধকার অতীতের কথা শোনালেন হানি।  

বললেন, তীব্র মানসিক যন্ত্রণার সঙ্গে লড়াই করে আজ ফিরে এসেছেন বাস্তব জীবনে। আর অতীতের সেই অন্ধকার জীবন থেকে বর্তমানের নতুন জীবনের আলো ফিরে পেয়ে তিনি সবার আগে ধন্যবাদ জানাতে চান তাঁর মাকে।

মায়ের কারণই আজ হানি সুস্থ-স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে পেরেছেন। সালটা ২০১৪। বলিউডে রটে যায় অত্যধিক নেশা ছাড়াতে নাকি হানি সিংকে পাঠানো হয়েছে মাদক নিরাময় কেন্দ্রে।

কিন্তু সেই সময় অজ্ঞাতবাসে চলে যান হানি। কিন্তু কোথায় ছিলেন হানি সিং? যদিও তা নিয়ে এখনই মুখ খুলতে চাননি তিনি। তবে জানালেন, ওই সময়টা মারাত্মক মানসিক যন্ত্রণায় ছিলেন তিনি। সেই সঙ্গে ছিল অত্যধিক মদের নেশা।

মদ আর মানসিক যন্ত্রণাই তাঁকে বিষাদের গহিনে ঠেলে দিচ্ছিল ক্রমাগত। ওই সময় ওষুধ-পথ্য কিছুই কাজ করছিল না। সারা দিন বাড়িতে বসে থাকতেন। আর ক্রমাগত ঘুমের ওষুধ খেতেন। আত্মবিশ্বাসের পারদ ছিল একেবারে তলানিতে।

হানি সিং নিজের মুখে স্বীকার করে নিয়েছেন, ওই সময়টা মারাত্মক বাইপোলার ডিজঅর্ডারে ভুগছিলেন তিনি।

একজন সংগীতশিল্পী হিসেবে যেখানে লাখ লাখ মানুষের সামনে অনুষ্ঠান করতে বিন্দুমাত্র আত্মবিশ্বাসের অভাব হতো না, সেখানে অসুস্থতার সময়ে মাত্র চার থেকে পাঁচজন মানুষ দেখলেই নার্ভাস লাগত। শরীর খারাপ হয়ে পড়ত।

তবে সেই সময়ে বাড়িতে বসে অনেকগুলো কবিতা লিখেছিলেন তিনি। আর মায়ের কথা মনে করে গানও লিখেছিলেন তিনি। সেই দুঃসহ দিন থেকে বেরিয়ে আসার ক্ষেত্রে হানি সিংয়ের মা ছিলেন অন্যতম অনুপ্রেরণা। জানালেন, ‘মাকে মনে করেই ওই মানসিক যন্ত্রণা থেকে ধীরে ধীরে মুক্তির পথ খুঁজে পেয়েছি।’

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে